অর্থনীতি

বেসরকারি খাতে ঋণ প্রবৃদ্ধি সর্বনিম্ন

  

পিএনএস ডেস্ক: ব্যাংকের তারল্যের টানাটানি, ঋণের উচ্চ সুদহারসহ নানা কারণে ভাটা পড়েছে বেসরকারি খাতের ঋণে। প্রবৃদ্ধি ধারাবাহিক কমে বিগত ছয় বছরের সর্বনিম্ন পর্যায়ে নেমেছে। গত জুনে বেসরকারি খাতে ঋণ প্রবৃদ্ধি নেমেছে ১১ দশমিক ২৯ শতাংশে। এ হার ২০১৩ সালের জুনের পর সর্বনিম্ন। ওই সময়ে ঋণ প্রবৃদ্ধি ছিল ১১ দশমিক শূন্য ৪ শতাংশ।সংশ্নিষ্টরা বলছে, বেসরকারি বিনিয়োগ কমে যাওয়ার অন্যতম কারণ ব্যাংকগুলোর কাছে এখন পর্যাপ্ত তারল্য নেই। ঋণ আমানত অনুপাতের (এডিআর) সমন্বয়ের চাপ রয়েছে। এছাড়া আর্থিক খাতের নানা

ঈদের আগেই মসলার বাজারে আগুন!

  

পিএনএস ডেস্ক: প্রতি বছরই কোরবানির ঈদের আগে দেশের প্রতিটি অঞ্চলে মসলার বাজারে আগুন লাগে। দ্বিগুণ-তিনগুণ কিংবা সুযোগ বুঝে তার বেশি দাম হাঁকান ব্যবসায়ীরা। এ নিয়ে বরাবরই হাহুতাশ বাড়ে দেশের নিম্ন ও মধ্যবিত্ত শ্রেণির মানুষের। দাম বৃদ্ধি ধনীদের জন্য অসুবিধার কারণ না হলেও সীমিত আয়ের মানুষ এই কোরবানির ঈদে বাজারে মসলা কিনতে গিয়ে পড়েন বিড়ম্বনায়। অনেকেই অভিযোগ আর ক্ষোভ উগড়ে দেন। কিন্তু কে শোনে কার কথা! বাজার সিন্ডিকের হাতেই যেন বন্দি হয়ে পড়েন ক্রেতারা। বাধ্য হয়ে বেশি দামেই কিনতে হয় মসলা।কোরবানির ঈদের

আবার বাড়ল সোনার দাম

  

পিএনএস ডেস্ক:আবারও বাড়ল সোনার দাম। প্রতি ভরি সোনায় সর্বোচ্চ ১ হাজার ১৭০ টাকা দাম বাড়িয়েছে বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতি (বাজুস)।বুধবার থেকে প্রতি ভরি ২২ ক্যারেট সোনার দাম পড়বে ৫৩ হাজার ৩৬২ টাকা।মঙ্গলবার বাজুস এক বিবৃতিতে জানায়, আন্তর্জাতিক বাজারে সোনার দাম বেড়ে যাওয়ায় এ সিদ্ধান্ত নিতে হয়েছে।এর আগে গত ৩ জুলাই থেকে প্রতি ভরি ২২ ক্যারেট সোনা (১১.৬৬৪ গ্রাম) বিক্রি হচ্ছিল ৫২ হাজার ১১৯৬ টাকা।বাজুসের ঘোষণা অনুযায়ী বুধবার থেকে প্রতি গ্রাম ২২ ক্যারেট সোনার দাম পড়বে ৪ হাজার ৫৭৫ টাকা।

১৫ দিনে শেয়ারবাজারে ২৭০০০ কোটি টাকা উধাও!

  

পিএনএস ডেস্ক : আবারও সূচকের লাগামহীন পতন। আর তাতে এক দিনেই ৪ হাজার ৩৫৮ কোটি টাকার লোকসান গুনতে হয়েছে শেয়ারবাজারের বিনিয়োগকারীদের। এতে সবচেয়ে বেশি বিপদে পড়েছেন ঋণগ্রস্ত বিনিয়োগকারীরা। কারণ ঋণের অর্থ আদায়ে অনেকের পত্রকোষ বা পোর্টফোলিওতে থাকা শেয়ার জোর করে বিক্রির (ফোর্সড সেল) আওতায় পড়েছে।আগের দিনের বড় দরপতনের ধারাবাহিকতায় গতকাল সোমবারও সূচকের বড় পতন ঘটে। তাতে দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ৫ হাজার পয়েন্টের মনস্তাত্ত্বিক সীমার নিচে নেমে গেছে। এতে

সরকারি ব্যাংকে খেলাপি ঋণ কমেছে : অর্থমন্ত্রী

  

পিএনএস ডেস্ক: সরকারি ব্যাংকে খেলাপি ঋণের পরিমাণ বৃদ্ধি পায়নি বলে দাবি করেছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। তিনি বলেছেন, আমি শপথ নেয়ার প্রথম দিনই বলেছিলাম, আজ থেকে ব্যাংকিং খাতে খেলাপি ঋণ বাড়বে না। কিন্তু আপনারা (সাংবাদিকেরা) লিখেছেন খেলাপি বেড়েছে। কিন্তু আমার কাছে যে তথ্য আছে তাতে সরকারি ব্যাংকে খেলাপি ঋণ বাড়েনি, বরঞ্চ কমেছে। তিনি আরো বলেছেন, যারা ত্রæটি-বিচ্যুতি স্বীকার করে আমাদের কাছে আসবেন, তাদের বিষয়টি আমরা দেখব। কিন্তু যারা ব্যাংক থেকে ঋণ নিয়ে বিদেশে নিয়ে গেছেন বা বালিশের নিচে রেখেছেন

অর্থ লুটপাটকারীদের কোন ছাড় নয় : অর্থমন্ত্রী

  

পিএনএস ডেস্ক : ব্যাংকিং খাতকে আরও জোরদার করার আহবান জানিয়ে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেছেন, যারা ব্যাংক টাকা নিয়ে প্রতারণা করেছে, লুটপাট করেছে, বিদেশে পাচার করেছে, তাদের কোনও ছাড় দেয়া হবে না। তাদের বিরুদ্ধে কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।সোমবার (২২ জুলাই) সন্ধ্যায় সচিবালয়ে মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকের ব্যাবস্থাপনা পরিচালকদের (এমডি) সঙ্গে বৈঠক শেষে গণমাধ্যমের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।অর্থমন্ত্রী বলেন, ব্যাংক থেকে যারা অন্যায়ভাবে টাকা নিয়েছে,

ছয়-নয় সুদহার নিয়ে নয়-ছয়

  

পিএনএস ডেস্ক: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে সুদহার কমানোর প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল ব্যাংক মালিকরা। এ জন্য নানা সুযোগ-সুবিধাও নিয়েছে ব্যাংকগুলো। কিন্তু গত এক বছরেও তা বাস্তবায়ন করেনি। এখন ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালকরা (এমডি) বলছেন ৯ শতাংশ সুদে ঋণ বিতরণ করতে হলে ৬ শতাংশে আমানত প্রয়োজন। তবে গ্রাহক পর্যায়ে ৬ শতাংশ সুদে আমানত পাওয়া যাচ্ছে না। তাই ৯ শতাংশ সুদে ঋণ দেয়া সম্ভব নয়।রোববার (২১ জুলাই) বাংলাদেশ ব্যাংকের ব্যাংকার্স সভায় এ কথা বলেন এমডিরা। গভর্নর ফজলের কবিরের সভাপতিত্বে বৈঠক ডেপুটি

কৃষিঋণের লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে ব্যর্থ ৮ ব্যাংক

  

পিএনএস ডেস্ক: সদ্যসমাপ্ত ২০১৮-১৯ অর্থবছরে কৃষি ও পল্লী ঋণ বিতরণের লক্ষ্যমাত্রা অর্জন করতে পারেনি বেসরকারি আটটি ব্যাংক। ব্যাংকগুলো হলো- এবি ব্যাংক, ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংক, মেঘনা ব্যাংক, মধুমতি ব্যাংক, এনআরবি গ্লোবাল ব্যাংক, সাউথ বাংলা এগ্রিকালচার অ্যান্ড কমার্স ব্যাংক, ইউনিয়ন ব্যাংক ও বিদেশি ন্যাশনাল ব্যাংক অব পাকিস্তান।এগুলোর মধ্যে এক টাকাও কৃষিঋণ বিতরণ করেনি ন্যাশনাল ব্যাংক অব পাকিস্তান ও মধুমতি ব্যাংক। কৃষিঋণের লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে ব্যর্থ এসব ব্যাংকের শাস্তি হিসেবে অনর্জিত

ভুট্টা রফতানিতে পোলট্রি শিল্পে অস্থিরতা সৃষ্টির আশঙ্কা

  

পিএনএস ডেস্ক: বাংলাদেশের ভুট্টা নেপালের বাজারে রফতানি হচ্ছে। পোলট্রি শিল্পে ভুট্টার চাহিদার তুলনায় দেশে অর্ধেক উৎপাদন হওয়ায় ওই রফতানি কার্যক্রম দেশীয় এই শিল্প অস্থিরতার আশঙ্কা করছেন সংশ্লিষ্টরা। ব্যবসায়ীরা বলছেন, এমনিতে নিজেদের প্রয়োজনে ব্রাজিলসহ পৃথিবীর কয়েকটি দেশ থেকে ভুট্টা আমদানি করতে হচ্ছে। এরপরেও যদি দেশের ভুট্টা বিদেশে রফতানি করা হয় তাহলে আমদানির পরিমাণ বাড়াতে হবে। ফলে ভুট্টা থেকে উৎপাদিত প্রধান পণ্য পোলট্রি ফিডের দাম বেড়ে যাবে। এতে দরিদ্র মানুষের ক্রয় ক্ষমতার বাইরে চলে যাবে পোলট্রি

যেভাবে সাধারণ মানুষের টাকা আত্মসাৎ করছে আজিজ কো-অপারেটিভ

  

পিএনএস (আহমেদ জামিল) : সমবায় আইন অনুসারে কো-অপারেটিভগুলো বছরে দুবার অডিট করার কথা থাকলেও আজিজ কো-অপারেটিভ সোসাইটি তা করছে না।অবৈধ ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে সাধারণ মানুষের কাছ থেকে অধিক মুনাফার প্রলোভন দেখিয়ে সারাদেশ থেকে শতকোটি টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে প্রতিষ্ঠানটির কর্ণধারের বিরুদ্ধে।আমানতকারীরা টাকা ফেরত চাইলে তাদের নানা ধরনের হুমকি-ধামকি এমনকি প্রাণনাশের হুমকি দেয়ার অভিযোগও পাওয়া গেছে।ইতিমধ্যে সুফিয়া আক্তার নামের এক নারীকে প্রাণনাশের হুমকি এবং ১৬ লাখ টাকা আত্মসাতের মামলায় আজিজ

Developed by Diligent InfoTech