ইসলাম

ঈদে মিলাদুন্নবী আজ

  

পিএনএস ডেস্ক: পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) আজ। মানবজাতির শিরোমণি মহানবী হজরত মুহাম্মদ (সা.)-এর জন্ম ও ওফাত দিন। ৫৭০ খ্রিস্টাব্দের ১২ রবিউল আউয়াল ইসলামের শেষ নবী (সা.) আরবের মরু প্রান্তরে মা আমিনার কোল আলো করে জন্মগ্রহণ করেন। ৬৩২ খ্রিস্টাব্দের এই দিনে মাত্র ৬৩ বছর বয়সে তিনি ইন্তেকাল করেন। দিনটিকে পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী বা সিরাতুন্নবী (সা.) হিসেবে পালন করেন সারা বিশ্বের মুসলমানরা।একটা সময় পুরো আরবজাহান ঘোর অন্ধকারে নিমজ্জিত ছিল। মানুষ হয়ে পড়েছিল বেদীন। তারা আল্লাহকে ভুলে গিয়ে নানা অপকর্মে

বৃষ্টি ঘূর্ণিঝড় ও প্রাকৃতিক দুর্যোগে যে দোয়া পড়বেন

  

পিএনএস ডেস্ক:ঘূর্ণিঝড়, জলোচ্ছ্বাস ও ঝড়ো বাসাত থেকে মুক্ত থাকতে রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম আল্লাহর কাছে সাহায্য চাইতেন। কেননা মহান আল্লাহই মানুষের সবচেয়ে বড় আশ্রয়দাতা।রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, ‘তোমরা বাতাসকে গালি দিও না। তবে যদি তোমরা একে তোমাদের ইচ্ছার বিরুদ্ধে দেখতে পাও, তবে এ দোয়া করবে-اَللَّهُمَّ اِنَّا نَسْئَالُكَ مِنْ خَيْرِ هَذِهِ الرِّيْحِ وَ خَيْرِ مَا فَيْهَا وَ خَيْرِمَا أُمِرَتْ بِهِ وَ نَعُوْذُبِكَ مِنْ شَرِّ هَذِهِ الرِّيْحِ وَ

পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) ১০ নভেম্বর

  

পিএনএস ডেস্ক : বাংলাদেশের আকাশে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় পবিত্র রবিউল আউয়াল মাসের চাঁদ দেখা গেছে। এ হিসেবে আগামী ১২ রবিউল আউয়াল অর্থাৎ ১০ নভেম্বর রোববার পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) পালিত হবে। সন্ধ্যায় বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদে জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির সভায় এ সিদ্ধান্ত হয়েছে।সভায় সভাপতিত্ব করেন ধর্মসচিব মো. আনিছুর রহমান। উপস্থিত ছিলেন ওয়াকফ প্রশাসক শহীদুল ইসলাম, ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মু. আ. হামিদ জমাদ্দার, তথ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মীর মো. নজরুল ইসলাম, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের

বিশ্ব ইজতেমার তারিখ ঘোষণা

  

পিএনএস ডেস্ক : তাবলিগ জামাতের বিবদমান দু’পক্ষ আলাদাভাবে বিশ্ব ইজতেমা আয়োজনে সম্মত হয়েছে। আগামী ১০ থেকে ১২ এবং ১৭ থেকে ১৯ জানুয়ারি দু’পক্ষ আলাদাভাবে ইজতেমার আনুষ্ঠানিকতা পালন করবে।ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র তথ্য কর্মকর্তা আনোয়ার হোসাইন এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।২০২০ সালের বিশ্ব ইজতেমা আয়োজনের বিষয়ে আলোচনার জন্য সোমবার তাবলিগ জামাতের দু’পক্ষের সঙ্গে বৈঠক করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।সোমবার বিকাল সাড়ে ৪টায় সচিবালয়ে অনুষ্ঠিত বৈঠকে সাদ অনুসারীদের পক্ষে নেতৃত্ব দেন সৈয়দ

কবর দেখলে মুসলিম নারীদের কী করণীয়?

  

পিএনএস ডেস্ক : পরম করুণাময় আল্লাহতায়ালা কবর জিয়ারতকে সুন্নত আমল করে দিয়েছে। কারণ, কবর জিয়ারতের মধ্য দিয়ে মন নরম হয়, আখিরাতের স্মরণ আসে, দুনিয়ার সম্পদ-খ্যাতি ও ক্ষমতার মোহ হ্রাস পায়। পুরুষের মতো নারীরাও কি কবর জিয়ারত করতে পারবেন? এ নিয়ে ইসলামী বিশ্লেষকদের মধ্যে বিভ্রান্তি রয়েছে। এ নিয়ে দ্বিমতও রয়েছে। যেমন ইমাম তিরমিজি (রহ.) তার প্রসিদ্ধ সুনানে (১০৫৬) হযরত আবু হুরায়রা (রা.) থেকে হাদিস বর্ণনা করেছে, ‘মহানবী কবর জিয়ারতকারী নারীদের ওপর অভিশাপ দিয়েছেন।’ঠিক তার বিপরীত বর্ণনা পাওয়া যায়

জিন ও শয়তান থেকে রক্ষা পেতে করণীয়

  

পিএনএস ডেস্ক: শয়তান মানুষের প্রকাশ্য দুশমন। শয়তান ছাড়াও বদ-জিন মানুষের ওপর আক্রমণ করে থাকে। বদ-জিন ও শয়তানের আক্রমণ থেকে বেঁচে থাকতে দুটি বিষয় মেনে চলা জরুরি।উপমহাদেশের শ্রেষ্ঠ বিদ্যাপীঠ দারুল উলুম দেওবন্দের শায়খুল হাদিস মুফতি সাঈদ আহমদ পালনপুরী জিনের আক্রমণ থেকে বেঁচে থাকতে ২টি নসিহত পেশ করেছেন। তা হলো-উচ্চ আওয়াজে কুরআন তেলাওয়াত করা। যে ঘর কিংবা বাড়িতে উচ্চ আওয়াজে কুরআন তেলাওয়াত করা হয়, জিন কখনো সে ঘরে আক্রমণ করতে পারে না।নাপাকি থেকে দূরে থাকা।ঘরে নাপাক বস্তু কিংবা নাপাক শরীরে

গোসলের পর নতুন করে অজু করার প্রয়োজন আছে কি?

  

পিএনএস ডেস্ক:প্রশ্ন: আমি দীর্ঘদিন থেকে আমার বাবাকে গোসলের পর নতুন করে ওযু করতে দেখি। আমার জানার বিষয় হলো গোসলের পর নতুন করে ওযু করার ব্যাপারে শরীয়তের বিধান কি ?উত্তর: بسم الله الرحمن الرحيمগোসলের শুরুতে অজু করা সুন্নত। গোসলের মাধ্যমে যেহেতু অজু হয়ে যায়, তাই গোসলের পর ওযু ভঙ্গের কারণ পাওয়া না গেলে নতুন করে ওযু করতে হবে না। আম্মাজান আয়েশা সিদ্দীকা রাদিয়াল্লাহু তা’আলা আনহা থেকে বর্ণিত রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম গোসলের পরে নতুন করে অজু করতেন না। ( জামে তিরমিজী:

বাতিল হচ্ছে একাধিকবার হজ-ওমরাহ'র অতিরিক্ত ফি

  

পিএনএস ডেস্ক : ইতিপূর্বে ধার্য করা ৩ বছরের মধ্যে একাধিকবার ওমরাহ এবং ৫ বছরে একাধিকবার হজ পালনকারীদের উপর আরোপিত অতিরিক্ত দুই হাজার সৌদি রিয়াল ফি বাতিল হচ্ছে। স্থানীয় গণমাধ্যমে এমন খবর প্রকাশ হলেও এখনো জারি হয়নি রাজকীয় কোনো আদেশ।তবে একাধিক সূত্র বলছে- আগামী সপ্তাহে হজ-ওমরাহ, ভ্রমণ ভিসার ফি পুণঃগঠনসহ বেশ কিছু বিষয় নিয়ে আদেশ জারি হতে পারে। এ ব্যাপারে যোগাযোগ করা হলে বাংলাদেশ হজ অফিস মক্কার কাউন্সিলর মোহাম্মদ মাকসুদুর রহমান বাংলাদেশ প্রতিদিনকে বলেন, এখনো অফিসিয়াল কোন ঘোষণা আসেনি। ঘোষণা

যে কারণে আশুরা দিনটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ

  

পিএনএস ডেস্ক : আরবি বর্ষের প্রথম মাস, অর্থাৎ মহরম মাসের ১০ তারিখ মুসলিম ধর্মাবলম্বীদের জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ দিন। এই দিনটি আশুরা হিসেবে পরিচিত।ইসলামি বর্ষপঞ্জিতে যে চারটি মাস মুসলিমদের দৃষ্টিতে সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ তার মধ্যে মহররম অন্যতম। ১০ই মহররম দিনটিকে ‘বিশেষ মর্যাদার’ দৃষ্টিতে দেখে মুসলিমরা।ইসলামের ভেতর দুটি মত - সুন্নি এবং শিয়া - উভয়ের কাছেই আশুরার দিনটি গুরুত্বপূর্ণ।ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের অধ্যাপক মুহাম্মদ আব্দুর রশীদ বলেন, আশুরা বা ১০ই মহররম

মুমিন নারীর প্রতি মহানবী (সা.)-এর সাত উপদেশ

  

পিএনএস ডেস্ক : ইসলামপূর্ব জাহেলি আরব সমাজে নারীর কোনো মর্যাদাপূর্ণ অবস্থান ছিল না। তাদের গণ্য করা হতো ভোগের বস্তু হিসেবে। পরিবারের পুরুষ সদস্যের মর্জির ওপর নির্ভর করত তাদের জীবন ও জীবিকা। এমনকি সামাজিক লজ্জার ভয়ে নারীকে জীবন্ত কবর দেওয়া হতো। ইসলাম নারীর জীবনের, বরং মর্যাদাপূর্ণ জীবনের অধিকার দেয়। নারীর প্রতি তৎকালীন সামাজিক মনোভাবের তীব্র প্রতিবাদ করে পবিত্র কোরআনে ইরশাদ হয়, ‘যখন তাদের কন্যাসন্তানের সুসংবাদ দেওয়া হয়, মনঃকষ্টে তাদের চেহারা কালো হয়ে যায়। তাদের যে সুসংবাদ দেওয়া হয়েছে তার কারণে