নবাবপুরের ব্যবসায়ীরাও দোকান বন্ধ রাখবেন

  

পিএনএস ডেস্ক : রাজধানীর নবাবপুরের ব্যবসায়ীদের বড় অংশ আগামী ৮ জুন পর্যন্ত ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার ঘোষণা দিয়েছে।

আজ শনিবার (৯ মে) দুপুরে ব্যবসায়ীদের বৈঠক শেষে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছে নবাবপুর দোকান মালিক সমিতি।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ‘আজ (৯ মে) দুপুরে বাংলাদেশ অ্যাগ্রিকালচারাল মেশিনারি মার্চেন্ট অ্যাসোসিয়েশন, বাংলাদেশ হার্ডওয়্যার অ্যান্ড মেশিনারি মার্চেন্টস অ্যাসোসিয়েশন এবং নবাবপুর দোকান মালিক সমিতির সভাপতি খন্দকার মঈনুর রহমানের (জুয়েল) সভাপতিত্বে সব কর্মকর্তা ও পরিচালকদের উপস্থিতিতে বামমা সভাকক্ষে এক জরুরি সভা অনুষ্ঠিত হয়। বাংলাদেশ ইলেকট্রিক্যাল মোটর পাম্প ইম্পোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশন, ফায়ার ফাইটিং ইকুইপমেন্ট বিজনেস ওনার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ, বাংলাদেশ বিয়ারিং মার্চেন্ট অ্যাসোসিয়েশন ও নবাবপুর ব্যবসায়ী সমাজের নেতারাও সভায় উপস্থিত ছিলেন। এতে সবার সর্বসম্মতিক্রমে ব্যবসায়ীদের স্বার্থ সংরক্ষণে উল্লিখিত সংগঠনগুলোর আওতাধীন সব ব্যবসা প্রতিষ্ঠান আগামী ৮ জুন পর্যন্ত সম্পূর্ণরূপে বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।’

করোনাভাইরাস পরিস্থিতির মধ্যে দোকানপাট ও শপিংমল খোলার সিদ্ধান্ত জানিয়ে গত ৪ মে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়, বিভাগীয় কমিশনার ও জেলা প্রশাসকদের কাছে চিঠি পাঠানো হয়। সেখানে বলা হয়, স্বাস্থ্যবিধি মেনে সীমিত পরিসরে আগামী ১০ মে থেকে শপিংমল ও দোকানপাট খোলা যাবে। তবে তা বিকেল ৪টার মধ্যে বন্ধ করতে হবে।

সরকারের এ ঘোষণার পর দেশের অন্যতম সেরা দুটি শপিংমল যমুনা ফিউচার পার্ক ও বসুন্ধরা সিটি শপিং কমপ্লেক্স কর্তৃপক্ষ জানায়, জনস্বাস্থ্য বিবেচনায় রমজান মাসে শপিংমল দুটি খোলা হবে না। পরে একই সিদ্ধান্ত জানায় নিউমার্কেট, মৌচাক ও আনারকলি, গুলিস্তান-ফুলবাড়িয়া-রমনা ভবন এলাকার সব মার্কেট।

তবে বাংলাদেশ দোকান মালিক সমিতির পক্ষ থেকে বলা হয়, কেউ চাইলে বন্ধও রাখতে পারেন, কেউ চাইলে সরকারি স্বাস্থ্যবিধি মেনে মার্কেট বা দোকানপাট খুলতেও পারেন।

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন