বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণ, এসআইর বিরুদ্ধে মামলা

  

পিএনএস : বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে দৈহিক সম্পর্ক ও গর্ভপাত ঘটানোয় ধর্ষণের অভিযোগ এনে নড়াইলের শেখহাটি পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ এসআই আবদুল করিমের (সাময়িক বরখাস্ত) বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন এক নারী।

সোমবার নড়াইল নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনাল`র (জেলা ও দায়রা জজ)বিচারক বাশার মুন্সীর আদালতে মামলাটি দায়ের করা হয়।

আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে আগামী ৩ আগস্টের মধ্যে কালিয়া ও নড়াগাতি থানার দায়িত্বে থাকা ম্যাজিস্ট্রেট জাহিদ হাসানকে জুডিশিয়াল তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দিয়েছেন।

এর আগে গত জুন মাসে প্রতারণা ও ধর্ষণের শিকার ওই নারীর লিখিত অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে নড়াইলের পুলিশ সুপার সরদার রকিবুল ইসলামের নির্দেশে ওই এসআইকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়।

মামলার বিবরণে জানা যায়, স্বামীর সঙ্গে ওই নারীর বিবাহ বিচ্ছেদ হওয়ায় তিনি কালিয়া থানার পাশে বাবার বাড়িতে বসবাস করেন। প্রায় সাত মাস আগে কালিয়া থানায় কর্মরত থাকাকালে এসআই আব্দুল করিম ওই নারীর বাড়িতে যাওয়া-আসা করতেন।

একপর্যায়ে এসআই করিম বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ওই নারীকে গত বছর ১৬ ডিসেম্বর তার (বাদীর) বাবার বাড়িতে ধর্ষণ করেন। এতে তার গর্ভে সন্তান আসে। এরপর ওই নারী তাকে বিয়ে সম্পন্ন করার কথা বললে বিষয়টি এড়িয়ে গিয়ে চিকিৎসার নাম করে ইনজেকশন ও খাওয়ার বড়ির মাধ্যমে গর্ভপাত ঘটান এসআই করিম।

পরে ভুক্তভোগী নারী নড়াইল পুলিশ সুপার ও সংশ্লিষ্ট দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। প্রাথমিকভাবে অপরাধ প্রমাণিত হওয়ায় এসআই করিমকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়।

পিএনএস/মোঃ শ্যামল ইসলাম রাসেল


 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech