সাতক্ষীরায় শিবিরের নেতাকর্মী আটক ১০

  

পিএনএস : সাতক্ষীরায় শিবিরের গোপন বৈঠকের সময় পুলিশ ১০ শিবির নেতাকর্মীকে আটক করেছে। এছাড়া পুলিশ জিহাদি বই, সরকার বিরোধী লিফলেট, ল্যাপটপ, চাঁদা আদায়ের রশিদ বই ও মটরসাইকেল উদ্ধার করেছে। শুক্রবার (১১ আগস্ট) সকাল ১১টার দিকে জেলার পাটকেলঘাটা থানার আমিনিয়া মাদ্রসা থেকে পুলিশ এদের আটক করে। সাতক্ষীরা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) উজ্জল মিত্র এসব তথ্য জানান।

আটক শিবির নেতাকর্মীরা হলেন— পাটকেলঘাট থান শিবিরের সভাপতি মেহেদী হাচান, ইমামুল হোসেন, ইয়াছিন আরাফাত, মাছুম বিল্লাহ, নাজমুল হোসেন, আশরাফুল ইসলাম, হারুন সরদার, নাজমুল হাসান, হাদিবুল ইসলাম ও খোকন হোসন।

সাতক্ষীরা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) উজ্জল মিত্র বলেন, ‘শিবিরের নেতাকর্মীরা গোপন বৈঠক করছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ আমিনিয়া মাদ্রাসায় অভিযান চালিয়ে এই নেতাকর্মীকে আটক করা হয়েছে। বিভিন্ন লিফলেট ও বই উদ্ধার করা হয়েছে। মামলার প্রস্তুতি চলছে।’

এদিকে, সন্ত্রাস, নাশকতা ও মাদক বিরোধী বিশেষ আভিযানে তিন ফেন্সিডিল ব্যবসায়ীসহ ১০৯ জনকে আটক করেছে পুলিশ। এ সময় ২৩০ বোতল ফেন্সিডিল ও ১৬ পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়েছে।
বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা থেকে শুক্রবার সকাল পর্যন্ত জেলার আটটি থানার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে এদের আটক করা হয় এবং বিভিন্ন অভিযোগে নয়টি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, সাতক্ষীরা সদর থানা থেকে ৬৪ জন, কলারোয়ায় পাঁচ, তালায় ছয়, কালিগঞ্জে আট, শ্যামনগরে সাত, আশাশুনিতে ছয়, দেবহাটায় সাত এবং ও পাটকেলঘাটা থানা থেকে ছয় জনকে আটক করা হয়েছে।

এছাড়া জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) ঢাকাগামী চিত্রা পরিবহন তল্লাশি করে ১৫০ বোতল ফেন্সিডিলসহ তিন মাদক ব্যাবসায়ীকে আটক করেছে। এরা হলেন— কালিগঞ্জ উপজেলার খাঁঘাট এলাকার আব্দুল গফ্ফারের ছেলে সাইফুল ইসলাম, চিত্রা পরিবহনের ড্রাইভার যশোর জেলার চৌগাছা উপজেলার কয়ারঘাট গ্রামের মৃত শহিদুল ইসলামের ছেলে শামীম উরফে আসাসুল হক ও হেলপার কুড়িগ্রামে জেলার পাইকপাড়া গ্রামের দেলোয়ার হোসেনের ছেলে হাফিজুর রহামান।

সাতক্ষীরা জেলা পুলিশের বিশেষ শাখার পরিদর্শক মিজানুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ‘আটকদের বিরুদ্ধে নাশকতা ও মাদকসহ বিভিন্ন অভিযোগে মামলা রয়েছে।’

পিএনএস/মোঃ শ্যামল ইসলাম রাসেল



 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech