গ্রেপ্তার ‘জিনের বাদশা’

  

পিএনএস ডেস্ক : ‘জিনের বাদশা’ পরিচয়ে প্রতারণাকারী রফিকুল ইসলাম (৩৩) নামের এক তরুণকে গ্রেপ্তার করেছে নাটোর জেলা গোয়েন্দা পুলিশ। গতকাল মঙ্গলবার রাতে গাইবান্ধার নিজ বাড়ি থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

রফিকুল ইসলাম গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার গন্ধববাড়ি গ্রামের আবদুল মজিদের ছেলে।

নিজেকে জিনের বাদশা পরিচয় দিয়ে নাটোরের নলডাঙ্গা উপজেলার পিপরুল গ্রামের আশরাফুল ইসলামের কাছ থেকে প্রায় সাড়ে ছয় লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ তার বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। এই মামলায় তাকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে আজ বুধবার দুপুরে আদালতে হাজির করা হয়। আদালত তাঁর জামিন নামঞ্জুর করে জেলহাজতে পাঠান।

এর আগে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ রফিকুল ইসলামকে পুলিশ সুপারের সম্মেলনকক্ষে সাংবাদিকদের মুখোমুখি করে। এ সময় সাংবাদিকেরা তাঁর কাছ থেকে প্রতারণার নানা কৌশল জানতে পারে। তিনি জানান, তাঁর বিশেষ একটি মুঠোফোন থেকে দেশের নানা প্রান্তের মানুষকে ফোন করে গুপ্তধনের লোভ দেখান।

গুপ্তধন লাভের কৌশল হিসেবে তিনি বিভিন্ন মানুষের কাছ থেকে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন। এভাবে তিনিসহ তাঁর এলাকার অনেকেই ধনাঢ্য হয়েছেন। মুঠোফোনে আলাপচারিতার একপর্যায়ে তিনি গুপ্তধনপ্রত্যাশী ব্যক্তির বাড়িতে হাজির হন এবং তাকে জায়নামাজ ও ধাতব মূর্তি উপহার দেন। এ সময়ের মধ্যে তিনি ধীরে ধীরে তার কাছ থেকে বিপুল পরিমাণ অর্থ আদায় করেন।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা গোয়েন্দা পুলিশের উপপরিদর্শক আশরাফুর রহমান জানান, মুঠোফোন পর্যালোচনা করে প্রতারক রফিকুল ইসলামকে গাইবান্ধা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তিনি প্রতারণার কথা স্বীকার করেছেন।

পিএনএস/জে এ /মোহন

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech