খিলগাঁওয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে গৃহবধূর আত্মহত্যা

  


পিএনএস ডেস্ক: রাজধানীর খিলগাঁও মেরাদিয়ায় পারিবারিক কলহের জের ধরে গলায় ফাঁস দিয়ে এক গৃহবধূ আত্মহত্যা করেছেন বলে দাবি করেছে তার স্বজনরা। গৃহবধূর নাম শিউলী আক্তার, বয়স ৩০ বছর। শুক্রবার ভোরে এ ঘটনা ঘটে।

পরে মুমূর্ষু অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সকাল ৯টার দিকে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এ বিষয়ে মৃতের ছোটভাই মো. রানা জানান, শিউলী আক্তার বর্তমানে খিলগাঁও মেরাদিয়ার একটি বাড়িতে স্বামী ইসমাইল হোসেন ও একমাত্র ছেলে রিফাতকে (৪) নিয়ে ভাড়া থাকতেন। ইসমাইল পেশায় একজন সিএনজি চালক। এছাড়া শিউলী স্থানীও একটি পোশাক কারখানায় কাজ করতেন।

তিনি আরো জানান, ভোরে প্রতিবেশীর মাধ্যমে খবর পেয়ে বোনের বাসায় ছুটে আসেন তিনি। পরে অচেতন অবস্থায় শিউলীকে উদ্ধার করে ঢামেকে নিয়ে এলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

শিউলী বাহ্মণবাড়িয়ার বাঞ্ছারামপুর উপজেলার আরঙ্গ গ্রামের জয়নাল মিয়ার মেয়ে। রানা ও তার পরিবারের অভিযোগ, পারিবারিক কলহের জের ধরে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে শিউলী।

এ প্রসঙ্গে ঢামেক হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই বাচ্চু মিয়া বলেন, শিউলীর মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ঢামেক হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে। ময়নাতদন্ত সম্পূর্ন হলে শিউলীর লাশ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

পিএনএস/আনোয়ার

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech