ছাত্রীর আপত্তিকর ছবি ছড়িয়ে গ্রেপ্তার সাবেক স্বামী!

  

পিএনএস ডেস্ক : বিশ্ববিদ্যালয়ছাত্রীর আপত্তিকর ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগে তাঁর সাবেক স্বামীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গতকাল বুধবার সন্ধ্যায় সহযোগী এক ছাত্রীসহ নাসিম মাহমুদ (২৪) নামের ওই ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। গ্রেপ্তার ব্যক্তিরা বৃহস্পতিবার আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।

নাসিম মাহমুদ চাঁপাইনবাবগঞ্জের গোমস্তাপুর উপজেলার রহনপুর পৌর এলাকার মনসুর আলীর ছেলে। এ ঘটনায় সহযোগিতার দায়ে রাজশাহীর একটি ছাত্রীনিবাস থেকে রাজশাহীর শাহ মখদুম কলেজের উচ্চমাধ্যমিক প্রথম বর্ষের এক ছাত্রীকেও গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এ ব্যাপারে ভুক্তভোগী ছাত্রী বাদী হয়ে সদর থানায় পর্নোগ্রাফি আইনে মামলা করেছেন।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ও ডিবি পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) আবু আব্দুল্লাহ জাহিদ বলেন, বৃহস্পতিবার বিকেলে চাঁপাইনবাবগঞ্জের অতিরিক্ত বিচারিক হাকিম আব্দুস সালামের আদালতে আসামিরা ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। তাঁদের কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা গোয়েন্দা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহবুব আলম বলেন, দ্বাদশ শ্রেণিতে পড়ার সময় নাসিমের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে ভুক্তভোগী ছাত্রীর। ২০১২ সালে তাঁদের বিয়ে হয়। এর আড়াই মাসের মাথায় বিচ্ছেদ হয়। এরপর ওই ছাত্রী আবার পড়ালেখা শুরু করে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হন।

ওসি মাহবুব আলম আরও বলেন, বিয়ের পর নাসিম মাহমুদ স্ত্রীর কিছু আপত্তিকর ছবি তুলে রেখেছিলেন। ওই শিক্ষার্থীর আবার বিয়ে ঠিক হয়েছিল। এ ঘটনার সূত্র ধরে ৬ জানুয়ারি সন্ধ্যায় ফেসবুকসহ বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ওই ছবিগুলো ছড়িয়ে দেন নাসিম। এ কাজে তাঁকে সহযোগিতা করেন শাহ মখদুম কলেজের এক ছাত্রী। সহযোগী ছাত্রীর আপন খালাতো ভাইয়ের সঙ্গে ভুক্তভোগী ছাত্রীর বিয়ে ঠিক হয়েছিল। ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীর অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে নাসিম মাহমুদ ও তাঁর সহযোগীকে গ্রেপ্তার করা হয়।

পিএনএস/জে এ /

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech