রাজধানীতে অস্ত্রসহ প্রতারক-ডাকাত চক্রের ১২ সদস্য গ্রেপ্তার

  

পিএনএস : সংঘবদ্ধ ডাকাত এবং প্রতারক চক্রের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে রাজধানীর মোহাম্মদপুর, শেরেবাংলা নগর ও হাজারীবাগ এলাকা থেকে ১২ জনকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব-২।

গতকাল বুধবার রাতে পৃথক দুই অভিযানে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- আবিদ (২১), ইমন (২০), বাবু (১৯), রুবেল (২০), সাইফুল ইসলাম (৩৬), ইমন (১৯), রেজাউল (২০), সুজন (২০), আরিফ হোসেন (৩১), কাউসার (২৮), তোফায়েল আহমেদ টিটু (৩৯) ও রেজাউল (৪৯)।

র‌্যাব-২ এর সহকারী পরিচালক ফিরোজ কাউছার জানান, গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে র‌্যাব ২ -এর একটি দল বুধবার রাত ১১টার দিকে মোহাম্মদপুরের বিক্রমপুর সুইটস বেকারি এবং শেরেবাংলা নগর থানা এলাকার জাতীয় চক্ষু বিজ্ঞান হাসপাতালের সামনে অভিযান চালায়। এ সময় ধারালো অস্ত্রসহ নয় সন্দেহভাজন ডাকাতকে গ্রেপ্তার করা হয়।

ফিরোজ কাউছার জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা সংঘবদ্ধ একটি ডাকাত দলের সক্রিয় সদস্য বলে জানিয়েছেন। দিনের বেলায় তারা ছোট ছোট দলে ভাগ হয়ে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় পথচারীদের কাছ থেকে নগদ অর্থ, মোবাইল, ল্যাপটপ, ভ্যানিটি ব্যাগ ইত্যাদি মূল্যবান জিনিস ছিনতাই করে। রাতের বেলায় তারা বিভিন্ন বাসা-বাড়ির গ্রিল কেটে ও তালা ভেঙে প্রবেশ করে ডাকাতি করে থাকে।

র‌্যাব-২ এর সহকারী পরিচালক জানান, পৃথক আরেকটি অভিযানে বুধবার রাতে হাজারীবাগ এলাকা গ্রেপ্তার করা হয় প্রতারক চক্রের সদস্য কাউসার, টিটু ও রেজাউলকে। এসময় তাদের কাছ থেকে একটি বিদেশি পিস্তল, গুলি ও নয় লাখ টাকা উদ্ধার করা হয়।

জিজ্ঞাসাবাদে তারা জানিয়েছেন, প্রতারক চক্রের সদস্যরা আসল নামের বদলে কখনো আমেরিকান, কখনোবা ব্রিটিশ নাগরিক পরিচয় দিয়ে ফেসবুকে আইডি খুলে বাংলাদেশিদের সঙ্গে বন্ধুত্ব করতেন। কখনও বিদেশি নামও ব্যবহার করতেন তারা। পরে ফেসবুকের সেইসব বন্ধুদের বাংলাদেশে বিনিয়োগ করার প্রস্তাব দিতেন। বন্ধুত্ব গভীর হলে বাংলাদেশে উপহার পাঠানোর কথাও বলতেন তারা। এমনকি এয়ারপোর্টের কাস্টমস কর্মকর্তা সেজে ফোন করে পার্সেল সংগ্রহের কথা বলে ‘ফেসবুক বন্ধুকে’ ডেকে এনে হাতিয়ে নিতেন তাদের টাকা।

এই চক্রের অন্য সদস্যদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে বলে জানান র‌্যাব-২ এর সহকারী পরিচালক ফিরোজ কাউছার।

পিএনএস/মোঃ শ্যামল ইসলাম রাসেল

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech