ঘুম থেকে জেগেই স্ত্রীকে খুন করল মাদকাসক্ত স্বামী

  

পিএনএস, কুমিল্লা প্রতিনিধি : ঘুম থেকে ডেকে তোলায় মাদকাসক্ত স্বামী ক্ষিপ্ত হয়ে খুন করলেন স্ত্রীকে। গত শুক্রবার (১৬ মার্চ) বিকেলে কুমিল্লার সদর উপজেলার কুচাইতলী গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। হত্যাকান্ডের শিকার রেহেনা বেগম। সে ওই গ্রামের মাদকাসক্ত মাহে আলমের স্ত্রী ও তিন সন্তানের জননী বলে জানা যায়। ঘটনার পর থেকে মাদকাসক্ত মাহে আলম পলাতক রয়েছে। খবর পেয়ে পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ (কুমেক) হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে।

জানা গেছে, ১৮ বছর আগে সদর দক্ষিণ উপজেলার গন্ধমতি এলাকার আইয়ুব আলীর মেয়ে রেহেনা বেগমের সাথে পারিবারিকভাবে বিয়ে হয় সদর উপজেলার কুচাইতলী এলাকার আব্দুর রশিদের ছেলে মাহে আলমের। বিয়ের পর তাদের সংসার আলোকিত করে তিন সন্তান। মাহে আলম কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল এলাকায় ছোলা বুট বিক্রি করতেন। কয়েক বছর ধরে মাহে আলম মাদকাসক্ত হয়ে পড়েন। এরপর থেকে তিনি প্রায়ই স্ত্রীকে মারধর করতেন।

গত শুক্রবার দুপুরে স্ত্রী রেহেনাকে বুট ভাজার কথা বলে মাহে ঘুমিয়ে পড়েন। রেহেনা কাজ শেষে স্বামীকে ঘুম থেকে ডেকে তুলতে যান। অতিরিক্ত ডাকাডাকির ফলে বিরক্ত হয়ে মাহে আলম ঘুম থেকে উঠেই স্ত্রীকে এলোপাতাড়ি মারধর শুরু করেন। একপর্যায়ে রেহানা জ্ঞান হারিয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। অবস্থা বেগতিক দেখে দ্রুত স্ত্রীকে কুমেক হাসপালে নিয়ে যান। সেখানে চিকিৎসকরা রেহেনাকে মৃত ঘোষণা করলে মাহে আলম তার লাশ বাড়িতে এনে দ্রুত পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে পুলিশ রেহেনার লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য একই হাসপাতালের ফরেনসিক বিভাগে পাঠায়।

কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু সালাম মিয়া ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, খবর পেয়ে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছি। ময়নাতদন্তের পর বিস্তারিত বলা যাবে। তবে নিহতের শরীরে আঘাতের চিহৃ রয়েছে। ঘটনার পর থেকে মাদকাসক্ত মাহে আলম পলাতক রয়েছেন।'

পিএনএস/মোঃ শ্যামল ইসলাম রাসেল

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech