এবার উত্তরায় বাসে যৌন হয়রানির শিকার বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রী - অপরাধ - Premier News Syndicate Limited (PNS)

এবার উত্তরায় বাসে যৌন হয়রানির শিকার বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রী

  

পিএনএস ডেস্ক: রাজধানীর উত্তরায় যৌন হয়রানির শিকার হয়েছেন বেসরকাবি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী। ঘটনাটি তার সহপাঠীরা জানতে পেরে তারা সড়ক আটকে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন।

উত্তরা ইউনিভার্সিটির ওই ছাত্রী বাসে যৌন হয়রানির শিকার হন আগের দিন। এ ঘটনার প্রতিবাদে দুপুরে উত্তরা হাউজিবিল্ডিং এবং আজমপুরের মাঝামাঝি এলাকায় অবস্থান নিয়ে যে পরিবহনের বাসে ওই তরুণী হয়রানির শিকার হন, সেই তুরাগ পরিবহনের বাস আটকে দেন শিক্ষার্থীরা।

এই প্রতিবেদন লেখার সময় রাত ১১টা পর্যন্ত শিক্ষার্থীরা রাস্তায় অবস্থান করছিলেন। তারা আজ রাত ১২টার মধ্যে অভিযুক্ত বাসকে শনাক্ত করে চালক ও সহকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার দাবি জানাচ্ছেন। নইলে সোমবার থেকে তুরাগ পরিবহনের কোনো বাস এই রুটে চলতে না দেয়ার হুঁশিয়ারি দিচ্ছেন তারা।

উত্তরা ইউনিভার্সিটির ছাত্র আকরাম হোসেন জানান, তাদের সহপাঠী তরুণী শনিবার বেলা পৌনে একটার দিকে বাড্ডা লিংক রোড থেকে তুরাগ বাসে ওঠেন উত্তরা যাওয়ার জন্য। তিনি মেয়েদের জন্য সংরক্ষিত আসনেই বসেছিলেন।

ওইসময় বাসে যাত্রী সংখ্যা ছিল কম। তাদের মধ্যে যারা নেমে যান, তাদের বদলে কাউকে বাসে নতুন করে না তোলায় সন্দেহ হয় ওই তরুণীর। আর বাসটি যখন প্রায় খালি হয়ে যায় তখন চালকের সহকারী ওই তরুণীতে বাসের পেছনের আসনে গিয়ে বসতে বলেন।

এ সময় বাসের আরকেজন সহকারী দরজার সামনে দাঁড়িয়ে কোনো যাত্রী যেন না উঠে সেটা নিশ্চিত করছিলেন। বসুন্ধরা এলাকায় এটা দেখে ওই তরুণীর সন্দেহ আরও বেড়ে যায়। তখন তিনি দরজার কাছে গিয়ে নামার চেষ্টা করেন। কিন্তু চালকের সহকারী ‘কই যান’ বলে তার হাত চেপে ধরেন। আর আরেকজন গেইট লাগাতে শুরু করেন। মেয়েটি সজোরে দুই সহকারীকে ধাক্কা দিয়ে চলন্ত বাস থেকে নেমে পড়েন। তারপর অন্য বাসে করে বিশ্ববিদ্যালয়ে ফিরে ঘটনা খুলে বলেন সহপাঠীদের।

আকরাম জানান, এই ঘটনার প্রতিবাদে তারা রাস্তায় নেমে তুরাগ পরিবহনের বাস আটকে দিচ্ছিলেন। তখন ভুক্তভোগী তরুণীও সেখানে ছিলেন। এক পর্যায়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে আসে এবং তারা ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দেয়।

পিএনএস/আলআমীন

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech