এক মাস ধরে শিশু ধর্ষণ; গ্রেপ্তার কিশোর

  

পিএনএস ডেস্ক: টিভি দেখতে দেয়া হবে না এমন ভয় দেখিয়ে নোয়াখালীর সোনাইমুড়ী উপজেলার দেওটি ইউনিয়নে গত এক মাস ধরে এক পাঁচ বছরের শিশুকে ধর্ষণ করার অভিযোগ উঠেছে ইউনুছ আহমদ সিয়াম নামে এক কিশোরের বিরুদ্ধে। অভিযুক্ত সিয়ামকে আটক করেছে পুলিশ।

সোমবার সকালে ভিকটিমকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অভিযুক্ত ইউনুছ আহমদ সিয়াম দেওটি ইউনিয়নের আমিরাবাদ গ্রামের দক্ষিণ আমিরাবাদ পাটোয়ারী বাড়ির মো. মিলনের ছেলে। সে আমিরাবাদ উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্র।

ভিকটিমের পরিবার সূত্রে জানা গেছে, গত এক মাস আগ থেকে একই বাড়ির সাত বছরের ফুহাদুল ইসলামকে তার কাকা ইউনুছ আহমদ সিয়াম তাদের ঘরে এসে প্রাইভেট পড়ানো শুরু করে। ওই সময় ফুহাদের সাথে তার ছোট বোনও এসে স্বরবর্ণ ব্যাঞ্জন বর্ণ পড়ত। প্রাইভেট শুরু হওয়ার চার দিন পর থেকে ঘরে অন্য কেউ না থাকার সুযোগে সিয়াম ফুহাদকে পড়তে দিয়ে ভিকটিমকে নিয়ে পাশের একটি কক্ষে গিয়ে দরজা জানালা বন্ধ করে দিত এবং অনেকক্ষণ পর বের হয়ে আসত। এভাবে প্রতিনিয়ত এই ঘটনা চলতে থাকে। এরমধ্যে ভিকটিম ও ফুহাদ এই ঘটনা তাদের মা-বাবাকে বলে দেবে বললে সিয়াম তাদের ঘরে গেলে টিভি দেখতে দেবে না এবং বেশি বাড়াবাড়ি করলে মেরে পানিতে ফেলে দেবে বলে হুমকি দেয়।

এর সূত্র ধরে গত ১৪ জুন বৃহস্পতিবারও সিয়াম ভিকটিমকে নিয়ে ওই কক্ষে ঢুকে দরজা-জানালা বন্ধ করে দেয়। এর কিছুক্ষণ পর ভিকটিমের মা ঘরে এসে দেখে ওই কক্ষের দরজা-জানালা বন্ধ। পরে তিনি ফুহাদকে জিজ্ঞেস করলে কক্ষের ভেতরে সিয়াম ও ভিকটিম রয়েছে বলে জানায় সে। এসময় তিনি সিয়ামকে ডাক দিলে সে দ্রুত কক্ষ থেকে বের হয়ে চলে যায়। পরে তিনি ভিকটিমকে জিজ্ঞেস করলে সে প্রতিদিনের ঘটনা তার মাকে খুলে বলে। এরপর ঘটনাটি সিয়ামের পরিবারের লোকজনকে জানালে তারা এ বিষয়ে কোন ব্যবস্থা না নিয়ে উল্টো তাদের বিভিন্ন ধরনের হুমকি দিতে থাকে। পরে নিরুপায় হয়ে রবিবার দুপুর ১২টার দিকে তারা এ বিষয়ে থানায় অভিযোগ করলে দুপুর ২টার দিকে পুলিশ অভিযুক্ত সিয়ামকে গ্রেপ্তার করে।

সোনাইমুড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. নাছিম উদ্দিন বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, অভিযুক্ত সিয়ামকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ধর্ষণের প্রাথমিক আলামত পাওয়া গেছে। ভিকটিমকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ঘটনায় একটি মামলার প্রস্তুতি চলছে বলেও জানান তিনি।

পিএনএস/হাফিজুল ইসলাম

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech