শিক্ষিকাকে ইভটিজিং ও লাঞ্চিত করায় ছাত্রলীগ নেতার কারাদন্ড

  

পিএনএস, ময়মনসিংহ প্রতিনিধি : ময়মনসিংহের মুক্তাগাছায় শিক্ষিকাকে ইভটিজিং ও লাঞ্চিত করায় ছাত্রলীগ নেতা মমিনুল ইসলামকে দশ দিনের জেল দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। কারাদন্ডপ্রাপ্ত মমিনুল ইসলাম মুক্তাগাছা শহীদ স্মৃতি সরকারি কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক।

মঙ্গলবার (২৩ এপ্রিল) সকালে মুক্তাগাছা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সুবর্ণা সরকার এ কারাদন্ডের আদেশ প্রদান করে মমিনুল ইসলামকে জেলে প্রেরণের জন্য পুলিশের হাতে তুলে দিয়েছেন বলে নিশ্চিত করেন মুক্তাগাছা উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয় সূত্র।

এর আগে সোমবার (২২ এপ্রিল) মুক্তাগাছা শহরের বড়হিস্যা বাজারের কালি মন্দিরের সামনে থেকে রাত ১১টার দিকে মমিনুলকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

তারও আগে বুধবার (১৭ এপ্রিল) মুক্তাগাছা শহরের কালীবাড়ি পুকুর ঘাট এলাকায় মুক্তিযোদ্ধা আমিন আহমেদ’র মেয়ে মুক্তাগাছা পৌর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষিকা আইনুন নেছা নিজ সন্তানকে স্কুলে দিয়ে ফেরার সময় ছাত্রলীগ নেতা মমিনুল ইসলাম মোটরসাইকেল দিয়ে শিক্ষিকার শরীরে ইচ্ছাকৃতভাবে ধাক্কা দেয়। ওই শিক্ষিকা এ ঘটনার প্রতিবাদ জানালে অকথ্য ভাষায় গালাগালি করে এবং ৩০ মিনিট রাস্তার উপরে দাঁড় করিয়ে রাখে শিক্ষিকাকে।

পরে ওই শিক্ষিকা তার ভাই মুক্তাগাছা শহীদ স্মৃতি সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি রকিব উদ্দিন আহমেদকে খবর দিলে তিনি ঘটনাস্থলে আসার পর তাকেও অকথ্য ভাষায় গালাগালি করেন মমিনুল।

এ বিষয়ে ঘটনার দিন রাতেই মুক্তাগাছা থানায় অভিযোগ দায়ের করার পর পুলিশ ছাত্রলীগ নেতাকে গ্রেফতার করে ভ্রাম্যমাণ আদালতের নিয়ে গেলে মুক্তাগাছা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সুবর্ণা সরকার এ কারাদন্ডের আদেশ প্রদান করেন।

পিএনএস/মো: শ্যামল ইসলাম রাসেল

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech