ধানের দাম মণ প্রতি ১২০০ টাকা হওয়া উচিত: বারকাত

  

পিএনএস ডেস্ক : ধানের দাম প্রতি মণ ১ হাজার ২০০ টাকা হওয়া উচিত বলে মন্তব্য করে কৃষকের সেই দাম প্রাপ্তি নিশ্চিত করতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন অর্থনীতি সমিতির সভাপতি আবুল বারকাত। তিনি ধানের উৎপাদন খরচের সঙ্গে কৃষকের শ্রমের মূল্য যোগ করে দাম নির্ধারণ করার পরামর্শ ‍দিয়েছেন।

আসন্ন বাজেট নিয়ে শনিবার ঢাকার সিরডাপ মিলনায়তনে অর্থনীতি সমিতির প্রস্তাব তুলে ধরে বক্তৃতার সময় এই আহ্বান জানান। তিনি বলেন, এবার বোরো ধান আবাদ করে উৎপাদন খরচ উঠছে না বলে কৃষকদের মধ্যে অসন্তোষ চলছে। মাঠের পাকা ধানে আগুন দেওয়ার ঘটনাও ঘটেছে।

বারকাত বলেন, “এ বছর বোরো ধানে কৃষকের প্রকৃত লোকসান হবে কমপক্ষে ৫০০ টাকা। এ নিয়ে সরকারের চিন্তিত হওয়ার যথেষ্ট কারণ আছে।”

বারকাত বলেন, ‘বর্তমানে প্রতি মন বোরো ধান উৎপাদনে ৬০০ টাকার বেশি উৎপাদন খরচের যে হিসাবটি দেওয়া হয়, তা সংশ্লিষ্ট কৃষাণ ও কৃষাণীর পারিশ্রমিক বাদ দিয়ে করা হয়। ওই পারিশ্রমিক হিসাব করলে আরও বেশি। তাই বোরো ধানের বিক্রয় মূল্য এক হাজার ২০০ টাকা করা উচিত’।

তিনি বলেন, “সরকারিভাবে সংগ্রহের ক্রয়মূল্য শুধু উৎপাদন খরচের তুলনায় কমপক্ষে ২০ শতাংশ বাড়ালেই হবে না। প্রকৃত কৃষকই যেন ঝামেলা ছাড়াই ওই বাজারমূল্য পান, তা নিশ্চিত করতে হবে।”

কৃষকদের জন্য স্বল্প সুদে ঋণের ব্যবস্থা এবং কৃষিঋণ মওকুফের সুপারিশও করেন অর্থনীতি সমিতির সভাপতি।

উল্লেখ্য, এবার বোরো ধান প্রতি মণ ১ হাজার ৪০ টাকায় কেনার সিদ্ধান্ত রয়েছে সরকারের। কিন্তু সরকারি কেনায় দেরি হওয়ায় ৫০০-৬০০ টাকায় দালালদের কাছে ধান বিক্রি করতে বাধ্য হয়েছেন অনেক কৃষক।

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech