ছাত্রলীগের সংঘর্ষে পাবনা মেডিকেল কলেজ বন্ধ

  

পিএনএস ডেস্ক: ক্যাম্পাসে আধিপত্য বিস্তার ও সিনিয়র-জুনিয়র দ্বন্দ্বের জের ধরে পাবনা মেডিকেল কলেজে ছাত্রলীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষ হয়েছে। এতে কমপক্ষে আটজন আহত হয়েছেন। তাদের পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এই পরিস্থিতিতে অনির্দিষ্টকালের জন্য পাবনা মেডিকেল কলেজ বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

জানা গেছে, পাবনা মেডিকেল কলেজে ছাত্রলীগের সভাপতি মাহফুজ নয়ন, সাধারণ সম্পাদক অদ্বিতীয় গ্রুপের মধ্যে নতুন শিক্ষার্থীদের বরণ নিয়ে তাদের মধ্যে বৃহস্পতিবার রাত থেকে শুক্রবার পর্যন্ত ক্যাম্পাসে তিন দফায় সংঘর্ষ হয়। এতে উভয় পক্ষের আটজন আহত হন।

আহতরা হলেন- মেডিকেল কলেজের সাবেক সভাপতি আবু তোরাব মিম, বঙ্গবন্ধু হলের সাংগঠনিক সম্পাদক, মশিউর রহমান, উপ-যুগ্ম সম্পাদক জয়দেব কুমার সূত্রধর, সদস্য নিঝর, সাগর আহম্মেদসহ আরো কয়েকজন।

এ ব্যাপারে পাবনা মেডিকেলে কলেজের অধ্যক্ষ মো. জিয়াজুল হক জানান, উদ্ভুত পরিস্থিতিতে পাবনা মেডিকেল কলেজ অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। বেলা দুইটার মধ্যে ছাত্রদের হোস্টেল ছেড়ে যাবার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। ক্যাম্পাসসহ হাসপাতাল চত্বরে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আব্দুর রাজ্জাক জানান, ভোর থেকে পাবনা মেডিকেল কলেজের ছাত্রলীগের দুই পক্ষের কয়েক দফা সংঘর্ষ হয়েছে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে বেশ কয়েকজনকে আহত অবস্থায় পাবনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়েছে। ক্যাম্পাসসহ হাসপাতাল চত্বরে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। পরিস্থিতি বর্তমানে স্বাভাবিক রয়েছে।

পিএনএস/আলআমীন

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech