রাবিতে প্রশাসনের সিদ্ধান্ত অমান্য করে হল ছাড়ার নির্দেশ: ক্ষুব্ধ ছাত্রীরা

  

পিএনএস, রাবি প্রতিনিধি : রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) প্রশাসনের হল ছুটির সিদ্ধান্ত অমান্য করে ছাত্রী হলে একদিন আগে হল ছাড়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

সোমবার (১৩ আগস্ট) বিকেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের মন্নুজান হলে ১৬ আগস্ট বিকেল ৫টার মধ্যে ছাত্রীদের হল ছাড়ার নির্দেশ দিয়ে নোটিশ টানানো হয়। অথচ বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ১৭ আগস্ট দুপুর ১২টায় হল বন্ধের নির্দেশ দিয়ে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে।

প্রশাসনের সিদ্ধান্ত না মেনে ১৭টি হলের মধ্যে শুধুমাত্র একটি হলে এমন নির্দেশনা দেয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন হলটির আবাসিক ছাত্রীরা। ছাত্রীদের অভিযোগ- ১৬ আগস্টও বিকেল ৫টা পর্যন্ত অনেক বিভাগের পরীক্ষা ও ল্যাব রয়েছে। অথচ ওইদিন ৫টার মধ্যে হল ছাড়তে বলা হয়েছে। খোঁজ-খবর না নিয়ে হল প্রাধ্যক্ষের একগুয়েমি সিদ্ধান্তে ভোগান্তিতে পড়তে হবে তাদের।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে হলের দুই জন আবাসিক ছাত্রী জানান, তারা দুজন বিজ্ঞান অনুষদের দুটি বিভাগে পড়াশোনা করেন। ১৬ আগস্ট ক্লাস না থাকলেও তাদের টিউটোরিয়াল পরীক্ষা রয়েছে। এছাড়া সকাল থেকে ল্যাবেও কাজ করতে হবে তাদের। বিকেল ৫টায় বিভাগ থেকে হলে ফিরে কীভাবে ব্যাগ ও বইপত্র গুছিয়ে বাড়ির উদ্দেশ্য রওয়ানা দেওয়া সম্ভব হবে তা নিয়ে দুঃশ্চিন্তার কথা জানান তারা।

বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ দফতরের প্রশাসক অধ্যাপক ড. প্রভাষ কুমার কর্মকার বলেন, আগামী ১৭ আগস্ট দুপুর ১২টায় সব হল বন্ধ হবে। এর আগে কোনো হল বন্ধের নোটিশ দেওয়ার প্রশ্নই আসে না। যদি কোনো হলের প্রাধ্যক্ষ এমনটি করে থাকেন, তবে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

জানতে চাইলে হল প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক জিন্নাত আরা ফেরদৌস বলেন, প্রাধ্যক্ষ পরিষদ প্রথমে যে সুপারিশ করেছিল, সেই অনুযায়ী আমরা হলে নোটিশ টানিয়েছিলাম। তবে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ হল প্রাধ্যক্ষের সুপারিশ বিবেচনা না করে পরবর্তীতে যে সিদ্ধান্ত নিয়েছে, সে ব্যাপারে আমাদেরকে লিখিতভাবে কিছু জানাইনি। তবে মৌখিকভাবে আজ মঙ্গলবার (১৪ আগস্ট) বিষয়টি জেনেছি। প্রয়োজনে নোটিশ পরিবর্তন করে দেয়া হবে।

পিএনএস/মো: শ্যামল ইসলাম রাসেল

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech