আমরণ অনশনে রাবির ৫৩ শিক্ষার্থী

  

পিএনএস ডেস্ক: রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) মনোবিজ্ঞান বিভাগের মাস্টার্সের ফাইনাল পরীক্ষায় ৬৪ জনের মধ্যে মাত্র ১১ জনের পরীক্ষা নিয়েছে পরীক্ষা কমিটি। বিভাগের এক শিক্ষার্থীর বাবা মারা যাওয়ায় সে অংশগ্রহণ করতে পারেনি তাই বাকিরাও পরীক্ষা দেয়নি। এ ঘটনায় পুনরায় পরীক্ষাটি নেয়ার দাবিতে আমরণ অনশনে নেমেছেন শিক্ষার্থীরা।

রবিবার (১৭ মার্চ) দ্বিতীয় দিনের মতো বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসন ভবনের সামনে অবস্থান নেন তারা।

আন্দোলনরত অনশনকারী শিক্ষার্থীরা জানান, গত ১৪ মার্চ বিভাগের মাস্টার্সের শিক্ষার্থী কানিজ ফাতেমার বাবা মারা যান। ফাতেমার মানবিক দিক বিবেচনায় শনিবার পূর্বনির্ধারিত ৫০২ নং কোর্সের পরীক্ষা না নেয়ার অনুরোধ জানায় সহপাঠীরা। পরীক্ষা কমিটির সভাপতি ড. সাবিনা সুলতানাকেও মৌখিকভাবে জানানো হয় বিষয়টি।

শিক্ষার্থীদের অনুরোধে কর্ণপাত না করে ৫৩ শিক্ষার্থীকে রেখেই শনিবার সাড়ে ১২টা থেকে সাড়ে ৪টা পর্যন্ত বিভাগের ৩৪১-৪২ নং কক্ষে পরীক্ষার আয়োজন করে বিভাগ কর্তৃপক্ষ। এ ঘটনায় পুনরায় পরীক্ষা নেয়ার দাবি জানিয়ে শনিবার সন্ধ্যায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসন ভবনের সামনে অনশনে বসে শিক্ষার্থীরা। রবিবারও সকাল থেকে এই কর্মসূচি পালন করেন তারা।

শিক্ষার্থীরা বলেন, আমরা চাই অভিভাবকতুল্য শিক্ষকরা আমাদের এ বিষয়টি মানবিকভাবে বিবেচনা করবেন। বিভাগ থেকে পুনরায় পরীক্ষা নেয়ার আশ্বাস না দিলে এবং পরবর্তী পরীক্ষাটি স্থগিত না করলে আমরা আমরণ অনশন চালিয়ে যাব।

এ বিষয়ে জানতে পরীক্ষা কমিটির সভাপতি ড. সাবিনা সুলতানাকে ফোন করা হলে তিনি ফোন ধরেননি। বিভাগের সভাপতি ড. নাজমা আফরোজকেও ফোন করে পাওয়া যায়নি।

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech