গণিতে খারাপের প্রভাবে সিলেটে সর্বনিম্ন ফলাফল

  

পিএনএস ডেস্ক : সিলেট শিক্ষা বোর্ডের অধীনে সোমবার মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট (এসএসসি) পরীক্ষায় ফলাফল প্রকাশিত হয়েছে। এবার পাসের হারের সূচক বাড়লেও কমেছে জিপিএ-৫ প্রাপ্তির সংখ্যা। সিলেটের প্রাপ্ত ফলাফলে পাসের হার ৭০ দশমিক ৮৩ এবং জিপিএ-৫ পেয়েছে ২ হাজার ৭৫৭ জন।

দেশের ৮টি সাধারণ শিক্ষা বোর্ডে এবার এসএসসিতে পাশের হার ৮২ দশমিক ২০ শতাংশ। যা সিলেটের অবস্থান সর্বনিম্ন। ফলাফলের সার্বিক অবনতির কারণ হিসেবে চলতি বছরের গণিতে প্রশ্নপত্র কঠিন হওয়াকে চিহ্নিত করছেন সংশ্লিষ্টরা।

পাসের হার ও জিপিএ-৫ কমার পেছনে কারণ সম্পর্কে জানতে চাইলে শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক কবির আহমেদ জানান, সাধারণ গণিত প্রশ্নপত্র আগের বছরের তুলনায় একটু কঠিন হওয়ায় সার্বিক ফলে প্রভাব পড়েছে। সাধারণ গণিত বিষয়ে সিলেটের শিক্ষার্থীরা ফলাফল খারাপ করার কারণে এবার পরীক্ষার সার্বিক ফলাফল কিছুটা খারাপ হয়েছে। তাই পাসের হার অল্প বাড়লেও কমেছে জিপিএ-৫। গত বছর গণিত বিষয়ে ৭৬ দশমিক ৬১ শতাংশ শিক্ষার্থী পাস করে। এবার তা কমেছে ১ দশমিক ৪০ শতাংশ। এ বিষয়ে এবার পাস করেছে ৭৫ দশমিক ২১ শতাংশ।
২০১৯ সালের মাধ্যমিক ও সমমানের পরীক্ষার সিলেটের প্রাপ্ত ফলাফলে পাসের হার ৭০ দশমিক ৮৩ এবং জিপিএ-৫ পেয়েছে ২ হাজার ৭৫৭ জন। এর মধ্যে ছেলের সংখ্যা ১ হাজার ৪২৬ এবং মেয়ের সংখ্যা ১ হাজার ৩৩১। বিজ্ঞান বিভাগে মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ২৩ হাজার ৫৬৭ এবং পাশের হার ৯৪ দশমিক ১৭, মানবিক বিভাগে মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ৭৯ হাজার ২১৫ এবং পাশের হার ৬৩ দশমিক ০৫ ও ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগে পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ১০ হাজার ৩৮৯ এবং পাশের হার ৭৭ দশমিক ২৫।

এবার সিলেটের চার জেলায় শতভাগ পাস করা প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা ২২টি। যা ২০১৮ সালে ছিল ২৩টি। এদিকে, এই বোর্ডের অধীনে একজনও পাস করেনি, এমন কোনো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান নেই।

২০১৮ সালে সিলেট বোর্ডে এসএসসি পরীক্ষায় এক লাখ আট হাজার ৯২৮ জন পরীক্ষার্থী অংশ নেয়। যার মধ্যে পাস করে ৭৬ হাজার ৭১০ জন। উত্তীর্ণদের মধ্যে ৩৪ হাজার ১৪৩ জন ছেলে এবং ৪২ হাজার ৫৬৭ জন মেয়ে।

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech