আন্দোলনে ইতি, জড়িতদের স্থায়ী বহিষ্কার না করা পর্যন্ত একাডেমিক কার্যক্রমে ‘না’

  

পিএনএস ডেস্ক : কিছু দাবি বাস্তবায়ন এবং বাকিগুলো বাস্তবায়নের প্রক্রিয়ায় থাকায় বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) ছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যার ঘটনায় চলমান মাঠপর্যায়ের আন্দোলনের আপাতত ইতি টেনেছেন আন্দোলনকারীরা।

তবে হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িতদের স্থায়ীভাবে বহিষ্কার না করা পর্যন্ত একাডেমিক কার্যক্রমে অংশ না নেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন তারা।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় আন্দোলনের কেন্দ্রস্থল বুয়েটের শহীদ মিনারের এক সংবাদ সম্মেলনে এ ঘোষণা দেওয়া হয়।

এসময় বলা হয়, ‘আমাদের আন্দোলনের এখানেই ইতি হচ্ছে। তবে আমরা সার্বিক বিষয় পর্যবেক্ষণ করতে থাকবো। আগামীকাল (বুধবার) শিক্ষক এবং শিক্ষার্থীদের নিয়ে গণশপথ নেব যাতে বুয়েট সুষ্ঠুভাবে পরিচালিত হয়।’

তাদের পক্ষ থেকে আরও বলা হয়, ‘আদালতে পুলিশের দেওয়া চার্জশিটের ভিত্তিতে জড়িত সবাইকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার না করা পর্যন্ত আমরা সাধারণ শিক্ষার্থীরা কোনো একাডেমিক কার্যক্রমে অংশ নেব না।’

আবরারের লাশকে ব্যবহার করে কিছু সংগঠন তাদের এজেন্ডা বাস্তবায়নের চেষ্টা করছে অভিযোগ করে সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, ‘আমাদের আন্দোলন দীর্ঘস্থায়ী করে আমরা মতলববাজদের রাজনীতি করার সুযোগ দিতে চাই না।’

প্রসঙ্গত, আবরার ফাহাদ হত্যাকাণ্ডের পর বিচারসহ ১০ দফা দাবিতে টানা সাত দিন ধরে আন্দোলন করে আসছিল বুয়েটের বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা। মাঝে ভর্তি পরীক্ষার জন্য কর্মসূচি শিথিল করা হয়।

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন