অনশন ভাঙলেন ঢাবি শিক্ষার্থীরা

  



পিএনএস ডেস্ক: সরস্বতী পূজার দিন ঢাকার দুই সিটি নির্বাচনের তারিখ ঘোষণার পরেই প্রতিবাদ জানাতে থাকেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। বিক্ষোভ, মানববন্ধন, অবরোধ, অবস্থান কর্মসূচি ও সর্বশেষ আমরণ অনশনের প্রায় ৫৫ ঘণ্টা পর নির্বাচনের তারিখ পরিবর্তনের ঘোষণা দিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

গত বৃহস্পতিবার দুপুর ২টা থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ২৯ জন শিক্ষার্থী আমরণ অনশনে বসেছিলেন। আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের মধ্যে বেশিরভাগই ছিলেন হিন্দু ধর্মাবলম্বী।অনশনে প্রায় ২৪ জন শিক্ষার্থী অসুস্থ হয়ে পড়েন।

শনিবার ইসি ভোটের তারিখ পরিবর্তনের ঘোষণার পরপরই অনশন ভাঙাতে রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে অনশনকারীদের কাছে আসেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান। উপাচার্য শিক্ষার্থীদের মুখে পানি ও শরবত দিয়ে অনশন ভাঙান।

অনশন ভাঙানোর পর উপাচার্য বলেন, ‘যখন গণতান্ত্রিক আন্দোলনের মাধ্যমে কোনো দাবির প্রতিফলন ঘটে তখন আমাদের ভালো লাগে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা অসাম্প্রদায়িক চেতনা ও মানবিক মূল্যবোধ দ্বারা তাড়িত হয়ে একটি যৌক্তিক দাবিতে অনশনে বসেছিল। নির্বাচন কমিশন সে দাবিকে সম্মান জানিয়েছে। এ জন্য কমিশনকে ধন্যবাদ। শিক্ষার্থীদের এই অসাধারণ মূল্যবোধকে আমি শ্রদ্ধা করি।’

তিনি বলেন, ‘যখন সমাজের অনেক অংশ কথা বলতে পারে না, তখন অন্ততপক্ষে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা মহৎ মূল্যবোধ প্রতিফলনের জন্য বক্তব্য রাখে। এমন একটি পদ্ধতিতে তারা আন্দোলন করেছে, একটি সুস্থ ধারার চিন্তার প্রতিফলন তারা দেখাতে সক্ষম হয়েছে। গণতান্ত্রিক মূল্যবোধে উজ্জীবিত হয়ে একটি যৌক্তিক দাবি তারা উত্থাপন করেছে। এটি সমাজে ইতিবাচক প্রভাব ফেলবে।’

পিএনএস/হাফিজ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech