বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় -অনিশ্চয়তায় ভর্তিচ্ছু এক লাখ শিক্ষার্থী

  


পিএনএস ( নজরুল মৃধা) রংপুর : সারা দেশের বিশ্ব বিদ্যালয়গুলোগুলো চলছে একভাবে। আর বেগম রোকেয়া বিশ্ব বিদ্যালয় চলছে উল্টোভাবে। নতুন বছরের ৩ মাস হতে চললেও এখন পর্যন্ত অনার্স প্রথম বর্ষ ভর্তি পরীক্ষা নিয়ে প্রায় এক লাখ শিক্ষার্থী অনিশ্চয়তার মধ্যে রয়েছেন। শিক্ষকদের আন্দোলনের কারণে এখনও পরীক্ষার কোন তারিখ নির্ধারন করা হয়নি। এনিয়ে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের মাঝে হতাশা দেখা দিয়েছে । বিভিন্ন দাবিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের বেশিরভাগ শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও কর্মকর্তা-কর্মচারিদের আন্দোলনের ফলে উপাচার্য ভর্তি পরীক্ষার তারিখ স্থগিত করেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল ৪, ৫ ও ৬ ডিসেম্বর।
বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা গেছে, বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ৬টি অনুষদে ২১টি বিভাগের ১ হাজার ২৫০টি আসন রয়েছে। এসব আসনে ২০১৪-২০১৫ শিক্ষা বর্ষে অনার্স প্রথম বর্ষ ভর্তি পরীক্ষায় আবেদনের সময়সীমা ছিল ১০ নভেম্বর। এরপর ওই তারিখ পরিবর্তন করে গত ২৫ নভেম্বর রাত ১২টা পর্যন্ত মোবাইল ফোনে রেজিস্ট্রেশন সময়সীমা নির্ধারন করা হয়। এ সময়ের মধ্যে আবেদন জমা পড়ে ৯০ হাজার ৪০২ জন শিক্ষার্থীর। যা গত বছরের চেয়ে প্রায় ২০ হাজার শিক্ষার্থী বেশি। প্রথমে ভর্তি পরীক্ষার তারিখ নির্ধারন করা হয়েছিল আগামী ৪, ৫ ও ৬ ডিসেম্বর। শিক্ষকসহ অন্যান্যদের আন্দোলনের ফলে ভর্তি পরীক্ষার তারিখ স্থগিত করা হয়েছে। এ তারিখ এখনও নির্ধারন করা হয়নি।
বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারি রেজিস্ট্রার(ভারপ্রাপ্ত)মোর্শেদ-উল-আলম জানিয়েছেন, কবে ভর্তি পরীক্ষা হবে আর কবে ভর্তি পরীক্ষা ও ক্লাস শুরু হবে এ বিষয়েইকছু বলা যাচ্ছেনা ।
আন্দোলনকারি বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি ড. হাফিজুর রহমান সেলিম জানান, আমরা চাই বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ দ্রুত ভর্তি পরীক্ষার তারিখ ঘোষণা করবেন। যাতে ভর্তির আবেদনকারি শিক্ষার্থীরা টেনশনে না থাকে।
আন্দোলনের বাইরে থাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নীল দলের সভাপতি আপেল মাহমুদ জানান, আন্দোলনের ফলে বিশৃংখলার কারণে পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে। এতে করে শিক্ষা জীবন থেকে পিছিয়ে পড়ছে শিক্ষার্থীরা। তারা বলেন, আমরাও চাই দ্রুত ভর্তি পরীক্ষার তারিথ ঘোষণা করা।
এব্যাপারে ভিসি অধ্যাপক ড. একেএম নূর-উন-নবী জানান, পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলেই পরীক্ষার তারিখ নির্ধারন করা হবে। তবে যত দ্রুত সম্ভব ভর্তি পরীক্ষার তারিখ নির্ধারন করা হবে।

গাইবান্ধার জামায়াত নেতা সাইদুর রহমান রংপুর থেকে গ্রেপ্তার
গাইবান্ধায় যাত্রীবাহি বাসে পেট্রোল বোমা মেরে ৮ জনকে পুড়িয়ে মারার মামলার অন্যতম আসামী জামায়াত নেতা সাইদুর রহমান আনছারীকে রংপুর থেকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। সোমবার দুপুরে রংপুর নগরীর বিনোদপুর এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।
কোতয়ালি থানার ওসি আবদুল কাদের জিলানী জানান, গাইবান্ধায় গত ১৩ জানুয়ারি রাতে বাসে পেট্রোল বোমা মেরে মানুষকে পুড়িয়ে মারার ঘটনার পর থেকেই গোবিন্দগঞ্জ জামায়াতের নায়েবে আমীর সাইদুর রহমান আনছারী আত্মগোপন করেন। তিনি রংপুরের বিনোদপুর রেলগেট এলাকায় একটি ঘর ভাড়া দিয়ে থাকতেন। দিনের বেলায় ঘর থেকে বের না হলেও রাতে বের হতেন। গোপান সুত্রে এমন খবর পেয়ে এসআই হারেছ সিকদারের নেতুত্বে একদল পুলিশ গতকাল অভিযান চালিয়ে তার ভাড়া করা ঘর থেকে জামায়াতনেতা আনছারীকে গ্রেফতার করে। আনছারীর বাড়ি শ্রীপুর গোবিন্ধগঞ্জ গাইবান্ধা জেলায়। তার বাবার নাম আনছার আলী। পুলিশ জানায়, সাইদুর রহমান আনছারীর বিরুদ্ধে হত্যাসহ ৬টি মামলা রয়েছে।
এদিকে, পুলিশ নগরীর বিভিন্নস্থানে অভিযান চালিয়ে নাশকতার অভিযোগে তিন জামায়াত ও ১৫ বিএনপিকর্মীকে গ্রেপ্তার করে।

পিএনএস/কাপাদো

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech