ঢাবিতে ডেভিড বার্গম্যানের কুশপুত্তলিকা দাহ

  

পিএনএস ডেস্ক: ব্রিটিশ মানবাধিকারকর্মী ও অনুসন্ধানী সাংবাদিক ডেভিড বার্গম্যানের কুশপুত্তলিকা পুড়িয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক আ ক ম জামাল উদ্দিনের নেতৃত্বাধীন সংগঠন মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ।

বৃহস্পতিবার (৪ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে ‘আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম আল জাজিরায় মিথ্যা-বানোয়াট তথ্যচিত্র সম্প্রচারের প্রতিবাদ’ শিরোনামে আয়োজিত মানববন্ধন শেষে ডেভিড বার্গম্যানের কুশপুত্তলিকা পোড়ানো করা হয়।

মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের আহ্বায়ক অধ্যাপক আ ক ম জামাল উদ্দিন মানববন্ধন থেকে আল জাজিরা ‘মিথ্যা ও বানোয়াট’ তথ্যচিত্র সম্প্রসার করার প্রতিবাদ জানান ও এর প্রতিবেদক ডেভিড বার্গম্যানকে দেশে নিষিদ্ধ করার দাবি জানান।

একই সময়ে ওই ঘটনায় আরেকটি প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে বুলবুল-মামুন নেতৃত্বাধীন সংগঠন বাংলাদেশ মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ। সমাবেশ থেকে তারা তিনটি দাবি জানিয়েছে।

দাবিগুলো হলো- ১. বাংলাদেশবিরোধী ষড়যন্ত্রের অপরাধে আল জাজিরা টিভির বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নিতে হবে। ২. স্বাধীনতাবিরোধী জামায়াত-শিবিরের মুখপত্র আল জাজিরার সম্প্রচার বাংলাদেশে নিষিদ্ধ করতে হবে। ৩. জামায়াতের পেইড এজেন্ট ডেভিড বার্গম্যানের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নিতে হবে।

বাংলাদেশ মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি আমিনুল ইসলাম বুলবুলের সভাপতিত্বে এই কর্মসূচিতে বক্তব্য রাখেন- সংগঠনের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি সনেট মাহমুদ, কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি নূর আলম, রোমান হোসাইন, ঢাকা মহানগর উত্তর শাখার সভাপতি মিলন ঢালী, সাধারণ সম্পাদক দ্বীন ইসলাম বাপ্পীসহ প্রমুখ।

বাংলাদেশ মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি সনেট মাহমুদ বলেন, ‘সম্প্রতি কাতারভিত্তিক টিভি চ্যানেল আল জাজিরায় মহান মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস বিকৃতি, দেশপ্রেমিক সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে অপপ্রচার ইত্যাদি সংবাদ প্রকাশ করার মাধ্যমে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে গভীর ষড়যন্ত্র করা হয়েছে।'

আমিনুল ইসলাম বুলবুল বলেন, ‘আল-জাজিরা স্বাধীনতাবিরোধী অপশক্তি জামায়াত ইসলামির মুখপত্র হিসেবে কাজ করায় এর বিরুদ্ধে যথাযথ আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানাচ্ছে বাংলাদেশ মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ। মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস বিকৃতি করে টেলিভিশন চ্যানেলটি প্রকৃত অর্থে যুদ্ধাপরাধীদের পক্ষে প্রচারণায় অংশ নিয়েছে। ২০০৯ সালে আন্তর্জাতিক যুদ্ধাপরাধ ট্রাইব্যুনাল গঠনের পর স্বাধীনতাবিরোধী জামায়াতে ইসলামি যে ধরনের অভিযোগ তুলেছে, আল জাজিরা সরাসরি সেসব অভিযোগের ভিত্তিতেই প্রতিবেদন, অনুষ্ঠান প্রচার করে যাচ্ছে। অর্থাৎ তারা জামায়াতের মুখপত্র হিসেবে কাজ করছে। বাংলাদেশের ঐতিহাসিক মুক্তিযুদ্ধের তথ্য বিকৃতির জন্য আল-জাজিরার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানাচ্ছে বাংলাদেশ মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ।’


পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন