২০ বছর পর

  


পিএনএস ডেস্ক: চলচ্চিত্র অভিনেত্রী দিলারা ইসায়মিন। যিনি সত্তর-আশির দশকে দাপিয়ে অভিনয় করেছেন রূপালি পর্দায়। ‘জালিম’, ‘জুলুম’, ‘ব্যথার দান’, ‘অসতী’, ‘আওলাদ’, ‘শাহাজাদা’, ‘সম্রাট’, ‘হাইজ্যাক’ ছাড়াও অসংখ্য সুপারহিট ছবিতে অভিনয় করেছেন।

এরপর ১৯৯৭ সালে ‘বাহরাম বাদশা’ ছবিতে সর্বশেষ অভিনয় করেন। তারপর অভিনয় থেকে দূরে সরে সংসারে মনোযোগী হন। আশার কথা হচ্ছে, একসময়ের দাপুটে এই অভিনেত্রী ২০ বছর পর আবারও চলচ্চিত্রে ফিরলেন।

দিলারা ইয়াসমিন অভিনয় করতে যাচ্ছেন মনতাজুর রহমান আকবর পরিচালিত ‘দুলাভাই জিন্দাবাদ’ ছবিতে। এই ছবির মহরত অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, “ছবির প্রযোজক নাদির খানের সঙ্গে আমার পারিবারিক সম্পর্ক। একদিন ঘরোয়া আড্ডায় তিনি আমাকে তার ‘দুলাভাই জিন্দাবাদ’ ছবিতে অভিনয়ের কথা বলেন। আমি হঠাৎ কেন জানি রাজি হয়ে যাই!”

দিলারা বলেন, ‘আমার মনে হয়েছে আমি ছবিটিতে কাজ করি। অনেকদিন তো এই চলচ্চিত্রের সঙ্গে জড়িত ছিলাম। এই ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি আমাকে অনেক কিছু দিয়েছে। তাই ফিল্মের প্রতি ভালোবাসা থেকে আবার কামব্যাক করেছি।’

এখন থেকে আবারও চলচ্চিত্রে নিয়মিত অভিনয় করার ইচ্ছার কথা জানিয়ে দিলারা বলেন, ‘যদি ভালো গল্প, নির্মাতার ছবি পাই তবে অবশ্যই কাজ করবো।’

এতোদিন অভিনয় ছেড়ে দূরে ছিলেন কেন? বিশেষ কোনো কারণ কিংবা অভিমান ছিল? দিলারা বলেন, ‘একদম না। আসলে আমি স্বেচ্ছায় হঠাৎ অভিনয় থেকে সরে গিয়েছিলাম। তবে চলচ্চিত্র থেকে নয়। এই অঙ্গনের মানুষগুলোর সাথে খুব ভালো সম্পর্ক আগেও ছিল, এখনও আছে। তবে আমি এর মধ্যে বেশ কিছু নাটকে কাজ করেছি।’

তিনি বলেন, ‘আমি সংসারে মনোযোগী ছিলাম। আমার এক মেয়ে আছে। তাকে বড় করেছি। বিয়ে দিয়েছি, তার একটা বাচ্চাও হয়েছে। আর এর ফাঁকে দেশ-বিদেশ ঘুরে বেড়িয়েছি।’

বর্তমানে চলচ্চিত্রের অবস্থা আগের মতো রমরমা হচ্ছে বলে মনে করেন দিলারা ইয়াসমিন। তিনি বলেন, ‘কয়েক বছর আগেও আমাদের ফিল্মের অবস্থা খারাপ ছিল। তখন অশ্লীল আর পাইরেসির তোপে দমে গিয়েছিল আমাদের ফিল্ম। এখন আবার আগের মতো জৌলুস ফিরে আসছে। আমার মনে হয় আগামীতে আরও ঘুরে দাঁড়াবে। কিছুদিন আগে আমি ‘আয়নাবাজি’ ছবিটা দেখেছি। দারুণ লেগেছে আমার কাছে। এই ধরনের ব্যতিক্রমী গল্পের ছবি বানিয়ে আবারও দর্শকদের হলমুখী করা যেতে পারে।’

পিএনএস/হাফিজুল ইসলাম

 

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech