পারিবারিক নির্যাতনের শিকার রানি মুখার্জি!

  

পিএনএস ডেস্ক : উঁহু! এই প্রথমবার এমন ঘটল না! প্রথমবার শুধু ঘটনাটা নিয়ে মুখ খুললেন তিনি! সাফ জানিয়েছেন রানী মুখার্জি তার পরিবারে নির্যাতন এবং মন্দ কথার স্রোত বয়ে যাওয়া প্রায় নিত্য নৈমিত্তিক ঘটনা!

তবে, এই নির্যাতনের বৃত্তান্ত কিন্তু পুলিশের কাছে জানাননি রানি। জানিয়েছেন নেহা ধুপিয়ার কাছে। আসলে, 'ভোগ বিএফএফ', অর্থাৎ বিশ্বখ্যাত 'ভোগ' পত্রিকা প্রযোজিত 'বেস্ট ফ্রেন্ড ফরএভার' টক শো-তে পুরনো বন্ধু এবং দেশের ডাকসাইটে ফ্যাশন ডিজাইনার সব্যসাচী মুখোপাধ্যায়ের সাথে হাজির হয়েছিলেন রানি।

নেহা ধুপিয়ার আতিথ্যে এই শো-তে এসে বলিউডের অনেক তারকাই নানা রকম বিস্ফোরক শিরোনাম উপহার দিয়েছেন সংবাদ মাধ্যমকে। সেখানেই মন খুলে জানিয়েছেন নায়িকা পারিবারিক নির্যাতনের কথা।

তবে আগ বাড়িয়ে নয়। জানতে চেয়েছিলেন নেহা- রানি কি তার বরকে গালাগালি দেন? না কি মানুষটি আদিত্য চোপড়া এবং বলিউডের গডফাদারদের একজন বলে রেয়াত করে চলেন?

'ও সবের প্রশ্নই উঠছে না! যখন আমার মাথা গরম হয়, তেড়ে গালাগালি করি আদিকে। শারীরিকভাবে হেনস্তাও করি, গায়ে হাত তুলি। তবে এটা কিন্তু একতরফা নয়। আদিরও মেজাজ গরম থাকলে মুখ দিয়ে খারাপ খারাপ কথা বেরোয়, আমায় পেটায়! এবং এটা একদিনের ব্যাপার নয়, প্রায় রোজই হয়', অকপট স্বীকারোক্তি রানির।

তাহলে কি এটাই ধরে নিতে হবে যে খুব একটা সুখী দাম্পত্যে নেই নায়িকা? বাস করছেন চরম অশান্তির সংসারে?

এ রকম ভাবলে ভুল শুধরে নেওয়ার জন্য সে-ই নায়িকারই উক্তি ব্যবহার করতে হবে। 'একটা কথা এখানে না বললেই নয়। গালাগালি দেই বলে আর পেটাই বলে আমরা যে পরস্পরকে ভালোবাসি না, তা নয়! বরং খুব বেশি রকমের ভালোবাসি বলেই এটা করতে পারি! আর গায়ে হাত তুললেও তা ঠিক শারীরিক অত্যাচার নয়, বরং ভালোবাসার অত্যাচার বলা যায়, জানিয়েছেন রানি।

পিএনএস/জে এ /মোহন

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech