‘অনেক আবেগী মানুষ ছিলেন বাচ্চু’

  

পিএনএস ডেস্ক: শেষবারের মতো ব্যান্ড লিজেন্ড আইয়ুব বাচ্চুকে শ্রদ্ধা জানাতে ভক্ত-অনুরাগীদের কেন্দ্রিয় শহীদ মিনার ভিড় জমিয়েছেন। ভক্তদের অশ্রু ও ফুলে ফুলে সিক্ত হয়েছেন জনপ্রিয় এই শিল্পী। সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের আয়োজনে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে শেষ শ্রদ্ধা জানানো হচ্ছে আইয়ুব বাচ্চুকে। সকাল ১০টা ২৫ মিনিট থেকে শুরু হয় শ্রদ্ধা নিবেদন। চলে দুপুর সাড়ে ১২টা পর্যন্ত।

কুমার বিশ্বজিৎ, রবি চৌধুরী, সাফিন, সুবর্ণা মোস্তাফা, নাসির উদ্দিন ইউসুফসহ সাংস্কৃতিক অঙ্গনের অগনিত মানুষ উপস্থিত হয়েছিলেন শহীদ মিনারে।

নাসির উদ্দিন ইউসুফ বলেন, ‘আইয়ুব বাচ্চুর গান শ্রোতারা গ্রহন করেছে বলেই আজকে লক্ষ লক্ষ তরুণ এই গানের দিকে ঝুঁকেছে। তাদের জীবনের উম্মাদনা তাদের জীবনের ভালো লাগা প্রকাশ করছে। আজম খানও চলে গেছেন, বাচ্চু চলে গেল তাদেরকে বাঁচিয়ে রাখতে হবে। এরা তো একটা সময়ের কথা বলেছে, একটা রিতির কথা বলেছে, এরা একটা ভাষার কথা বলেছে। এই সমস্ত ভাষায় ও রিতিতে তো আমাদের চর্চা হওয়া উচিৎ। একটি ভাষা ও একটি রিতিতে তো আর শিল্প চর্চা হয় না। সেই যাইগায় দাঁড়িয়ে একটি বহুমাত্রিক সংগীত ভাবনা এই গানের চর্চাও বাড়ানো উচিৎ।’

নাসির উদ্দিন ইউসুফ বলেন, ‘আইয়ু্ বাচ্চু অনেক আবেগ প্রবণ মানুষ ছিলেন। তার সঙ্গে আমার সম্পর্কটা ছিল বড় ভাই ছোট ভাইয়ের মতো। অনেক কথা হয়েছে তার সঙ্গে। দেশ নিয়ে, মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে তার যে ভাবনা ছিল, সেগুলো আমাকে বেশ স্পর্শ করতো। নবীন প্রবীণ সবাইকে কাছে টেনে নিতে পারতে তিনি। সবার কথা ভাবতেন।’

শহীদ মিনারে শ্রদ্ধা নিবেদন আইয়ুব বাচ্চুর মরদেহ নিয়ে যাওয়া হচ্ছে জাতীয় ইদগাহ ময়দানে। সেখানে জানাজা শেষে চট্টগ্রামে নিয়ে যাওয়া হবে বাচ্চুকে। নিজের জন্মভিটায় পারিবারিক কবরস্থানে মায়ের পাশ সমাহিত হবেন তিনি।

পিএনএস/হাফিজুল ইসলাম

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech