'ভারতপ্রেমে' মজেছেন পাকিস্তানে যাওয়ায় নিষিদ্ধ গায়ক মিকা সিং

  


পিএনএস ডেস্ক: কাশ্মীরে ৩৭০ ধারা বাতিলের পর পাকিস্তানের সঙ্গে ভারতের সম্পর্ক এখন তলানিতে। যার প্রভাব পড়েছে সাংস্কৃতিক অঙ্গনেও। পাকিস্তানে নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়েছে বলিউডের সিনেমা। অন্যদিকে, বলিউড থেকে এসেছে পাকিস্তানি শিল্পীদের বয়কট করার ঘোষণা এসেছে। কিন্তু এতকিছুর মধ্যেও একজন ছিলেন ব্যতিক্রম। তিনি হলেন ভারতীয় গায়ক মিকা সিং।

গত ৮ আগস্ট করাচিতে সাবেক পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী পারভেজ মুশাররফের এক আত্মীয়র বিয়েতে আমন্ত্রণ করা হয়েছিল মিকা সিংকে। গান গাওয়ার জন্য। সেই আমন্ত্রণ গ্রহণ করেছিলেন মিকা। সেখানে পেশাদার শিল্পীর মতো গানও গেয়ে এসেছিলেন। কিন্তু সেই খবর প্রচারিত হতেই প্রশ্নের মুখে পড়তে হয় তাকে। এরপরই সারা ভারত সিনে ওয়ার্কাস অ্যাসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে মিকাকে নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

সংগঠনের সভাপতি সুরেশ শ্যামল গুপ্ত একটি টুইট করে জানিয়েছেন, সারা ভারত সিনে ওয়ার্কার অ্যাসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে মিকা সিংয়ের প্রযোজনা সংস্থা, গান প্রস্তুতকারী সংস্থা ও অনলাইন সঙ্গীত সংস্থার সঙ্গে সমস্ত রকম সম্পর্ক ছিন্ন করতে চলেছে সিনে ওয়ার্কাস অ্যাসোসিয়েশন। পাশাপাশি বলা হয়েছে, মিকার সঙ্গে যাতে কোনও সংস্থা, কোনও প্রযোজক পরিচালক বা সঙ্গীত নির্মাতা কাজ না করেন সেটাও নিশ্চিত করবে সিনে ওয়ার্কার সংগঠন। যদি এরপরেও কেউ একসঙ্গে কাজ করার চেষ্টা করে, তাহলে তার বিরুদ্ধে আইন মাফিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মিকার পাকিস্তানে যাওয়া নিয়ে যখন জোর বিতর্ক শুরু হয়েছে, তখন স্বাধীনতা দিবসে আটারি সীমান্তে হাজির হয়ে 'ভারত মাতা কি জয়' বলে স্লোগান দিতে শুরু করেন বলিউড গায়ক। যা দেখে ক্ষেপে যান নেটিজেনরা। নেটিজেনদের একাংশের কথায়, পাকিস্তানে গিয়ে বিতর্কে জড়ানোর পর মিকা যেভাবে 'ভারত মাতা কি জয়' বলে স্লোগান দিচ্ছেন, তা বিরর্কিত পরিস্থিতিকে স্বাভাবিক করার জন্য মাত্র।

কেউ আবার বলতে শুরু করেন, দুই দেশের দ্বিপাক্ষিক পরিস্থিতি যখন খারাপ হতে শুরু করেছে, তখন মিকা কীভাবে কিছু না ভেবে পাকিস্তানে গেলেন। শুধু তাই নয়, পাকিস্তানের শিল্পীরা যখন ভারতের স্বাধীনতা দিবসকে 'কালো দিন' হিসেবে পালন করেছেন, তখন ভারতীয় শিল্পী হিসেবে পাকিস্তানে কীভাবে গেলেন মিকা, তা নিয়েও উঠছে প্রশ্ন। আবার কেউ কেউ মিকা সিংকে লজ্জাহীন বলে কটাক্ষ করতে শুরু করেন।

প্রসঙ্গত, করাচিতে মিকা সিংয়ের অনুষ্ঠানে দাউদ ইব্রাহিমের পরিবারের সদস্যরা হাজির ছিলেন বলে অভিযোগ করা হয়। যা নিয়ে জোর বিতর্ক শুরু হয়েছে বিভিন্ন মহলে।

পিএনএস/আনোয়ার

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech