প্রত্যেক মায়েরই মেয়েকে ১২ বিষয় শেখানো উচিত

  

পিএনএস: সন্তান ভালোভাবে প্রতিপালন মোটেই সহজ কাজ নয়। তবে কিছুটা মনোযোগ দিয়ে ধৈর্যের সঙ্গে লেগে থাকলে আপনার মেয়ে যে সুনাগরিক হিসেবে গড়ে উঠবে তা নিশ্চিত। এ লেখায় একজন বিশেষজ্ঞের ১২ পরামর্শ তুলে ধরা হলো। এক প্রতিবেদনে বিষয়টি জানিয়েছে ব্রাইট সাইড।

১. আপনার মেকআপ তারও মেকআপ
মেয়ে সর্বদা আপনাকে অনুসরণ করবে। আর তাই আপনি যে মেকআপ ব্যবহার করেন তার প্রতি আকৃষ্ট হবে সেও। তাই সতর্ক হতে হবে মেকআপ ব্যবহারে।

২. পিরিয়ড গুরুত্বপূর্ণ
পিরিয়ডের বিষয়টি বিরক্তিকর হলেও তা যে গুরুত্বপূর্ণ, তা জানানো উচিত।

৩. সে দ্রুত বেড়ে উঠুক, তাই চায় বিশ্ব
বিশ্ব তাকে দ্রুত বেড়ে ওঠা দেখতে চায়। আর এ কারণে আপনার উচিত তাকে যথাসম্ভব পরিস্থিতির সঙ্গে মানিয়ে চলায় সহায়তা করা।

৪. পিতার সঙ্গে সুসম্পর্ক
মেয়ে যেন পিতার সঙ্গে সুসম্পর্ক গড়তে পারে সেজন্য সহায়তা করুন।

৫. অর্থ সঞ্চয় শেখান
মেয়ে যেন অপব্যয়ী না হয় এবং অর্থ সঞ্চয় করতে পারে সেজন্য যথাযথ শিক্ষা দিন।

৬. দেহ বিষয়ে সতর্ক কথা
শিশুর সামনে দেহ বিষয়ে কথাবার্তায় সতর্ক থাকতে হবে। অন্যথায় সে ভুল বার্তা পেতে পারে।

৭. রক্ষাকবচ হোন
মেয়ে যেন বাস্তব জগতে সমস্যার মুখোমুখি হলেও তা সমাধান করতে পারে সেজন্য সহায়ক হোন। তার রক্ষাকবচ হয়ে উঠুন।

৮. রূপ নয় গুণের প্রশংসা করুন
মেয়ের শারীরিক সৌন্দর্য নয় বরং তার নানা গুণের প্রশংসা করুন। এতে সে সেসব বিষয়ে দক্ষ হয়ে উঠবে।

৯. নিজে সতর্ক হোন
আপনার জীবন থেকে সে শিখবে। তাই তার সামনে নিজে সতর্কভাবে চলাচল করুন। যেন ভুল কিছু সে না শেখে।

১০. নিজের স্বপ্ন ও আগ্রহের পেছনে দৌড়ান
আপনার প্রিয় কাজগুলোর পেছনে দৌড়ান। নিজের স্বপ্নকে বাস্তবে রূপদান করুন। আপনার মেয়েও তা দেখে শিখবে।

১১. স্মার্ট হওয়া শেখান
আপনার আত্মবিশ্বাস তার মাঝেও সঞ্চারিত হবে। তাই আপনি যখন আত্মবিশ্বাসী ও স্মার্ট হয়ে উঠবেন আপনার মেয়েও তাই হবে।

১২. শরীরের মূল্য
আপনার মেয়েকে শিক্ষা দিন যে, তার দেহও অনেক মূল্যবান। এর মূল্য বজায় রাখতে হবে।



পিএনএস/বাকিবিল্লাহ্

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech