ধর্ষকের সঙ্গে বিয়ে পরে সন্তানকে বিক্রি

  

পিএনএস,ডেস্ক: ২৫ বছর বয়সী এক তরুণী ২০১৪ সালে ধর্ষণের শিকার হয়েছিলেন। পরে ধর্ষকের সঙ্গে তার বিয়ে দেওয়া হয়। ওই দম্পতির ঘরে প্রথম সন্তানের জন্মের পর সেই সন্তানকে স্বামী এক নিঃসন্তান দম্পতির কাছে মাত্র ২৫ হাজার রুপিতে বিক্রি করে দেন। দুই বছর আগে এ ঘটনা ঘটেছে ভারতের উত্তরপ্রদেশের ব্রেইলি জেলায়।

টাইমস অব ইন্ডিয়ার এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ওই সময় সন্তান বিক্রিতে বাধা দিতে না পারলেও স্বামীর সঙ্গে বিচ্ছেদের পরে ওই তরুণী লিখিত অভিযোগ করেছেন থানায়। ওই নারী তার কন্যা সন্তানকে ফিরিয়ে দেয়ার দাবি জানিয়েছেন। একই সঙ্গে ধর্ষক ও সাবেক স্বামীর উপযুক্ত শাস্তি দাবি করেছেন তিনি।

ব্রেইলি পুলিশের উপ-পরিদর্শক জেনারেল আশুতোষ কুমার জানিয়েছেন, ‘ধর্ষিতার আনা অভিযোগ খুবই গুরুতর। আমরা এ ঘটনার তদন্তের দায়িত্ব মহিলা সার্কেল কর্মকর্তার কাছে হস্তান্তর করবো। এ ছাড়া এ অভিযোগের বিষয়ে বিশেষ নজর দেওয়া হবে’।

টাইমস অব ইন্ডিয়াকে দেওয়া সাক্ষাতকারে ওই তরুণী বলেন, ২০১৩ সালে তার পরিচয় হয় শাহভেজ নামের ওই তরুণের সঙ্গে। এমব্রয়ডায়রির ব্যবসায়ী শাহভেজ এবং তিনি জরির কাজের কারিগর ছিলেন। পরিচয়ের পর থেকে প্রায়ই তার বাড়িতে আসতেন শাহভেজ। বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে তার সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক গড়ে উঠে। পরে অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ায় তাকে ভয় দেখাতে শুরু করে শাহভেজ। জানাজানি হওয়ায় পাড়ার লোকজনের চাপে পড়ে বিয়ে করেন তাকে। কন্যা সন্তানের জন্মের পরে শাহভেজ সেই শিশুকে লুকিয়ে বিক্রি করে দেয় মাত্র ২৫ হাজার রুপির বিনিময়ে।

২০১৫ সালের জুন মাসে প্রেমনগর পুলিশ স্টেশনে শাহভেজের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন ওই তরুণী। এ সময় বিষয়টি পারিবারিকভাবে মীমাংসা করেন শাহভেজ এবং তার পরিবার। কিন্তু পুলিশ চূড়ান্ত প্রতিবেদন জমা দেওয়ার পর ফের স্বামীর কাছে প্রতারণার শিকার হন ওই নারী। পরে সন্তানকে ফিরে পেতে থানায় স্বামীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন তিনি।


পিএনএস/বাকিবিল্লাহ্

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech