ভারতে সেতু ভেঙে ৩০ জন ভেসে গেল, ২ লাশ উদ্ধার

  

পিএনএস ডেস্ক:ভারতের গোয়ায় তলিয়ে যাওয়া যুবকের উদ্ধারকাজ দেখতে গিয়ে ফুটব্রিজ ভেঙে নদীতে পড়ে ভেসে গেলেন কমপক্ষে ৩০ জন। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত দুটি মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এখনও নিখোঁজ অনেকে। দুর্ঘটনাটি ঘটে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা নাগাদ গোয়ার সনভোরডেম এবং কারকোচেম গ্রামের মাঝে জুয়ারি নদীর শাখা নদী সনভোরডেন নদীর উপর।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, এক যুবক আত্মহত্যার জন্য নদীতে ঝাঁপ দেন। খবর পেয়ে তাকে উদ্ধারে নামেন দমকল এবং জরুরি পরিষেবা বিভাগের কর্মীরা। সেসময় ওই ফুটব্রিজের উপর দাঁড়িয়ে উদ্ধারকাজ দেখছিলেন কমপক্ষে ৫০জন। হঠাৎই ব্রিজের প্রায় ৩০ মিটার লোহার চাঙড় ভেঙে পড়লে নদীতে তলিয়ে যান তারা।

পুলিশ জানিয়েছে, ২০জন নিজেরাই সাঁতরে তীরে ওঠেন। ১৪ জনকে জীবিত উদ্ধার করা হয়। দমকল বাহিনীর পাশাপাশি বাকিদের খোঁজে নদীতে তল্লাশি চালাচ্ছে নৌবাহিনী এবং স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা। অনেকে ভেঙে পড়া সেতুর লোহার চাঙড়ের নিচে চাপা পড়ে আছেন বলে মনে করছে পুলিশ। পুরো ঘটনায় নজরদারি চালাচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী মনোহর পারিকর। দুর্ঘটনা সম্পর্কে জানতে মুখ্যমন্ত্রীকে ফোন করেন প্রধানমন্ত্রী এবং কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

গোয়ার পূর্তমন্ত্রী সুধীন দাভিলকর বলেছেন, পর্তুগিজ আমলের ওই ফুটব্রিজটির ভগ্নদশা। মেরামতের জন্য গত চার বছর ধরে তা বন্ধ আছে। তা সত্ত্বেও ওই সেতুর উপর কেন দাঁড়িয়েছিলেন মানুষরা সেই প্রশ্ন তুলেছেন মন্ত্রী।


পিএনএস/আলআমীন

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech