নাবালিকা ছাত্রীকে বিয়ে করলেন ‘বৃদ্ধ’ শিক্ষক!

  

পিএনএস ডেস্ক : নাবালিকা ছাত্রীকে গায়ের জোরে সিঁদুর পরিয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠল স্কুলেরই এক শিক্ষকের বিরুদ্ধে। শুক্রবারের এই ঘটনার তীব্র চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে মালদহের ভূতনী থানার অন্তর্গত উত্তর চন্ডীপুর পঞ্চায়েতের পুলিন টোলা গ্রামের ভিমটোলা পুলিনটোলা জুনিয়ার হাইস্কুলে চত্বরে।

ছাত্রীকে সিঁদুর পরিয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠছে ওই স্কুলেরই শিক্ষক ধনপতি মণ্ডলের বিরুদ্ধে। জানা গিয়েছে, ধনপতি মণ্ডলের বয়স পঞ্চাশ হলেও এখনও অবিবাহিত। আজ দুপুরে যখন মিড ডে মিলের খাওয়ার খেতে ব্যস্ত ছিল স্কুলের ছাত্রছাত্রীরা। তখনই ওই স্কুলের অষ্টম শ্রেণির এক ছাত্রী মিড ডে মিলের খাওয়ার খাবার পর চাপা কলে গিয়েছিল তাঁর থালা ও হাত ধুতে ব্যস্ত ছিল। সেই সময়ই অভিযুক্ত ওই শিক্ষক ধনপতি মণ্ডল হাতে সিঁদুর নিয়ে গিয়ে উক্ত ছাত্রীকে পরিয়ে দেয়। এরপরই ওই ছাত্রী কান্নাকাটি শুরু করে।

এরপরেই খবর যায় বাড়িতে এবং গ্রামে। স্কুলে ছুটে আসে বাড়ির লোকজন ও গ্রামবাসীরা। স্কুলে পৌঁছে গণ্ডগোল বাঁধে। বেগতিক দেখে অভিযুক্ত শিক্ষক স্কুল ছেড়ে পালায়। অভিযোগ বিদ্যালয়ে উপস্থিত প্রধান শিক্ষক ও অন্যান্য শিক্ষকদের ঘিরে রেখে বিক্ষোভ দেখাতে থাকে। এবং অফিস ঘরে তাঁদের তালাবন্দি করে রেখে বিক্ষোভ চালাতে থাকে। ঘটনাস্থলে পৌঁছয় ভূতনী থানার পুলিশ। এরপর প্রধান শিক্ষক প্রণব মণ্ডল সহ অন্যান্য শিক্ষকদের উদ্ধার করে। তবে এক নাবালিকা ছাত্রীর সাথে এই ধরনের ঘটনা ঘটে যাওয়ায় আতঙ্কিত অন্যান্য ছাত্রীরা। এই ঘটনার পর ভূতনী থানায় লিখিত অভিযোগ জানিয়েছে ওই ছাত্রীর মা। পুলিশ এই ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে।

পিএনএস/জে এ /মোহন

 

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech