'আক্রান্ত হলে বিশ্ব মানচিত্র থেকে মুছে যাবে যুক্তরাষ্ট্র'

  

পিএনএস ডেস্ক : উত্তর কোরিয়ার বিরুদ্ধে বিদ্বেষপূর্ণ নীতি পরিত্যাগ না করা পর্যন্ত পরমাণু অস্ত্র হ্রাসের লক্ষ্যে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে আলোচনায় বসবে না পিয়ংইয়ং। জাতিসংঘকে এমনটাই জানাল উত্তর কোরিয়া।

জাতিসংঘের পরমাণু নিরস্ত্রীকরণ বিষয়ক এক বৈঠকে জাতিসংঘে নিযুক্ত উত্তর কোরিয়ার উপ-রাষ্ট্রদূত কিম ইন-রিয়ং বলেন, “কোরীয় উপদ্বীপের পরিস্থিতি বিস্ফোরণের পর্যায়ে রয়েছে এবং যে কোনও মুহূর্তে পরমাণু যুদ্ধ শুরু হয়ে যেতে পারে। ”

তিনি আরও বলেন, “আমেরিকার বিদ্বেষী নীতি ও পরমাণু হামলার হুমকি পুরোপুরি কেটে না যাওয়া পর্যন্ত আমরা কোনও অবস্থায় আমাদের পরমাণু অস্ত্র ও ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র নিয়ে আলোচনার টেবিলে বসব না। ”

উত্তর কোরিয়ার উপ-রাষ্ট্রদূত বলেন, একটি পরিপূর্ণ পরমাণু শক্তিধর দেশে পরিণত হওয়ার চূড়ান্ত দরজা অতিক্রম করেছে তার দেশ। এর অর্থ হচ্ছে উত্তর কোরিয়া এখন যে কোনও সময় পরমাণু বোমার হামলা চালাতে পারে।

এর আগে দেশটির প্রেসিডেন্ট কিম জং উন হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেন, “আমেরিকার গোটা মূল ভূখণ্ড এখন আমাদের হামলার আওতায় রয়েছে। কাজেই মার্কিন সরকার যদি উত্তর কোরিয়ার এক ইঞ্চি ভূমিতেও আগ্রাসন চালানোর ধৃষ্টতা দেখায় তাহলে সে পৃথিবীর কোনো প্রান্তে গিয়েই আমাদের শাস্তিমূলক পদক্ষেপ থেকে বাঁচতে পারবে না। আক্রান্ত হলে বিশ্ব মানচিত্র থেকে মুছে যাবে যুক্তরাষ্ট্র। ”


পিএনএস/জে এ /মোহন

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech