ভারতের হামলা প্রতিহত করতে প্রস্তুত পাকিস্তান সেনাবাহিনী

  


পিএনএস ডেস্ক: ভারতের সাথে পূর্ব সীমান্তের যেকোনো হুমকি মোকাবেলায় পাকিস্তান সেনাবাহিনী প্রস্তুত বলে জানিয়েছেন বাহিনীর প্রধান জেনারেল কামার জাভেদ বাজওয়া। ভারতের যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘনের ঘটনায় সতর্ক করে দিয়ে তিনি এ কথা বলেন। পাকিস্তান ইন্টার সার্ভিসেস পাবলিক রিলেশনসের (আইএসপিআর) এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা বলা হয়।

পাক সেনাপ্রধান বলেনে, ‘আমাদের পূর্ব-সীমান্তে নিয়ন্ত্রণ রেখাসহ আশেপাশের অঞ্চলে যেকোনো হুমকি বিরুদ্ধে তাৎক্ষণিক জবাব দিতে আমাদের প্রস্তুতি কোনোভাবেই শিথিল করা হবে না।’ সীমান্তে ভারতীয় সহিংসতার প্রেক্ষাপটে সীমান্ত এলাকায় সেনাবাহিনীর প্রস্তুতি ও পরিস্থিতি সম্পর্কে শুক্রবার রাওয়ালপিন্ডিতে সেনাবাহিনীর সদর দফতরে ব্রিফিংকালে সেনাপ্রধান এই মন্তব্য করেন। ভারতীয় বাহিনী চিরিকোট ও নেজাপির অঞ্চলে যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘন করে গত ১৬ নভেম্বর দুইজন বেসামরিক নাগরিককে হত্যা ও দুই নারীসহ আরো পাঁচজনকে আহত করেছে বলে পাকিস্তানের পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়েছে। ইসলামাবাদে নিযুক্ত ভারতের উপ-হাইকমিশনার জে পি সিংকে তলব করে বিনা প্ররোচনায় যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘনের নিন্দা জানিয়েছেন সার্কের মহাপরিচালক ড. মোহাম্মদ ফয়সাল।

ভারতীয় দূতকে তলব
পাকিস্তান পররাষ্ট্র দফতরে এক বিবৃতিতে বলা হয়, ‘বেসামরিক নাগরিকদের ইচ্ছাকৃতভাবে লক্ষ্যবস্তু করা মানবিক ও আন্তর্জাতিক মানবাধিকার আইনগুলোর সাথে অসঙ্গতিপূর্ণ এবং অত্যন্ত দুখঃজনক। ভারতের যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘন আঞ্চলিক শান্তি ও নিরাপত্তার জন্য হুমকি। তা ভুল বোঝাবুঝির সৃষ্টি করতে পারে।’ পাকিস্তানের পররাষ্ট্র দফতরের হিসাব অনুযায়ী শুধু এ বছরেই নিয়ন্ত্রণ রেখায় ভারত এক হাজার ৩০০ বারের বেশি যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘন করেছে। এতে কমপক্ষে ৫২ বেসামরিক লোক নিহত ও ১৭০ জন আহত হয়েছে।

পিএনএস/আনোয়ার

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech