মায়ের স্মৃতিতে কুড়ে বেড়ায় ‘শহিদ’ ৮ মাসের লায়লা!

  

পিএনএস ডেস্ক: মায়ের স্মৃতিতে এখনো জীবন্ত আট মাসের লায়লা। জড়িয়ে থাকা আর চুমুর স্পর্শগুলো যেন এখনো লেগে আছে তার শরীরে। কিন্তু হায়, সত্যিকার অর্থে আট মাসের ফুটফুটে মেয়েটি আর বেঁচে নেই। ইসরায়েলি বর্বরতা কেড়ে নিয়েছে ওকে। সোমবার ফিলিস্তিনিদের ভূমি ফেরত চাওয়ার বিক্ষোভের সময় ইসরায়েলে টিয়ার শেলে শ্বাসরুদ্ধ হয়ে জান্নাতের পথে পাড়ি দিয়েছে নিষ্পাপ শিশুটি।

মঙ্গলবার সকালে ফিলিস্তিনি স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা জানান, টিয়ার গ্যাসে শ্বাসরুদ্ধ হয়ে লায়লা পৃথিবী থেকে বিদায় নিয়েছে। লায়লার মা মারিয়াম কাঁদতে কাঁদতে বলেন, ‘ইসরায়েলি সেনাবাহিনী জীবনের প্রথম আনন্দ থেকে আমাকে বঞ্চিত করেছে।’

শোকাহত এই মা আরো বলেন, ‘ও ছিল আমার ঘরে আনন্দের উৎস। যে ওর দিকে তাকাতো, ও তার দিকে তাকিয়েই একটি হাসি দিতো। লায়লার মৃত্যুর জন্য পুরোপুরি ইসরায়েল দায়ী।’

সোমবারের সমাবেশে লায়লাকে না এনে তার নানুর কাছে রেখে আসতে চেয়েছিলেন মারিয়াম। পরে লায়লার ১২ বছরের মামা তাকে সেখানে নিয়ে আসে। ওই বিক্ষোভে শিশুটির নানুও যোগ দিয়েছিল। মারিয়ামের মা হায়াম ওমর বলেন, সমাবেশে বিপুল সংখ্যক শিশু থাকা সত্ত্বেও ইসরায়েলি বাহিনী ব্যাপক টিয়ার গ্যাস নিক্ষেপ করে।

ইসরায়েলি বাহিনী যখন ড্রোন দিয়ে ওপর থেকে টিয়ারগ্যাস নিক্ষেপ শুরু করে লায়লার মামা আম্মার তাকে কোলে নিয়ে দৌড়ে বাঁচানোর চেষ্টা করে। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তা আর সম্ভব হয়ে ওঠেনি। লায়লার দেহটি নীল বর্ণ ধারণ করতে শুরু করে। হাসপাতালে নেয়া হলে চিকিৎসক জানান, লায়লা আর বেঁচে নেই।

শান্তিপূর্ণ সমাবেশে হামলা করে শিশু হত্যার অভিযোগে আন্তর্জাতিক আদালতে ইসরায়েলি বাহিনীর বিচার চান লায়লার মা।

পিএনএস/আলআমীন

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech