সৌদির ক্ষমতা নিতে চাই প্রিন্স খালেদ!

  

পিএনএস ডেস্ক: সৌদি বাদশা সালমান বিন আব্দুল আজিজ এবং যুবরাজ মুহাম্মাদ বিন সালমানকে ক্ষমতাচ্যুত করার আহ্বান জানিয়েছেন প্রিন্স খালেদ বিন ফারহান।

মধ্যপ্রাচ্যের সংবাদ মাধ্যম ‘মিডল ইস্ট আই’কে দেওয়া এক সাক্ষাতকারে তিনি অভ্যুত্থানের মাধ্যমে ক্ষমতা গ্রহণের জন্য তার দুই চাচা প্রিন্স আহমেদ বিন আব্দুল আজিজ ও প্রিন্স মুকরিন বিন আব্দুল আজিজের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

তিনি জানান, তার আহ্বানে ইতোমধ্যে অনেকেই সাড়া দিয়েছেন।

জার্মানিতে নির্বাসিত জীবনযাপন করছেন প্রিন্স খালেদ বিন ফারহান। তিনি বর্তমান বাদশা ও যুবরাজের সমালোচনা করে বলেছেন, বর্তমান বাদশা সালমান এবং তার ছেলে যুবরাজ মুহাম্মাদ রাজপরিবারের অনেক ক্ষতি করেছেন। তারা যে মর্যাদাহানি করেছেন তা আর ফিরে পাওয়া যাবে না। বাদশা ও যুবরাজের অযৌক্তিক ও বাজে সিদ্ধান্তের কারণেই সৌদি রাজপরিবারের ভাবমর্যাদা ক্ষুণ্ণ হয়েছে বলে তিনি মনে করেন।

খালেদ বিন ফারহান বলেন, বাদশা এবং তার ছেলেকে ক্ষমতা থেকে সরালে পুলিশ এবং সেনাবাহিনীসহ সবাই তাদের সমর্থন জানাবে। ইতোমধ্যে তিনি সেনাবাহিনী এবং পুলিশের কাছ থেকে অভ্যুত্থানের সমর্থনে অনেক ই-মেইল পেয়েছেন বলেও জানান।

তিনি বলেন, বর্তমান যুবরাজ মুহাম্মাদ বিন সালমানের মানসিক সমস্যা রয়েছে। স্কুলে একসঙ্গে পড়ার সময় তিনি বিষয়টি উপলব্ধি করেছেন বলে জানান ফারহান।

সৌদি আরবের নির্বাসিত প্রিন্স খালেদ বিন ফারহান এমন সময় এসব বক্তব্য দিলেন যখন যুবরাজ মুহাম্মাদ বিন সালমান এক মাসের বেশি সময় ধরে রহস্যজনকভাবে জনসমক্ষে আসছেন না। গত ২১ এপ্রিল রিয়াদে অভ্যুত্থান চেষ্টার পর থেকেই তাকে আর দেখা যাচ্ছে না। প্রিন্স ফারহান এ প্রসঙ্গে বলেছেন, ২১ এপ্রিলের ঘটনাও প্রমাণ করে সৌদি আরবে বর্তমান বাদশার বিরুদ্ধে অভ্যুত্থানের প্রস্তুতি রয়েছে। সূত্র: পার্স টুডে

পিএনএস/আলআমীন

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech