৬৬ বছর পর নখ কেটে ভারতের শ্রীধর চিল্লালের বিশ্ব রেকর্ড!

  


পিএনএস ডেস্ক :২০১৬ সালে রাতারাতি বিশ্ব বিখ্যাত হয়ে গিয়েছিলেন। নাম উঠেছিল গিনেস বুকে। বাম হাতের লম্বা নখের সৌজন্যে সাফল্যের শীর্ষে পৌঁছে গিয়েছিলেন ভারতের পুনের বাসিন্দা শ্রীধর চিল্লাল (৮২)। কিন্তু এখন সবই অতীত। বয়সের ভারে দীর্ঘ ৯০৯.৬ সেন্টিমিটার নখ আর বহন করতে পারছেন না শ্রীধর। তাই নখ কাটার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি। আর সেই নখ কেটেও গড়লেন রেকর্ড। কারণ টানা ৬৬ বছর পর দীর্ঘ নখ কেটে নজির গড়লেন তিনি।

২০১৬ সালে বিশ্বের দীর্ঘতম নখের সৌজন্যে গিনেস বুক অফ ওয়ার্ল্ড রেকর্ডস এবং রিপ্লিজ বিলিভ ইট অর নট-এ নাম লেখান শ্রীধর চিল্লাল। বিশ্ব রেকর্ড গড়তেই বৃদ্ধ শ্রীধরকে নিয়ে শুরু হয় নানান কৌতুহল। নানান অনুষ্ঠানের আমন্ত্রণ আসতে শুরু করে। ধীরে ধীরে বদলাতে শুরু করে শ্রীধরের সাধারণ জীবন। কিন্তু এখন পরিস্থিতি বদলেছে।

বয়সে শরীর ভেঙে গেছে। চিকিৎসকের পরামর্শে তাই বাঁম হাতের নখ কাটার সিদ্ধান্ত নেন তিনি। শেষবার ১৯৫২ সালে নখ কেটেছিলেন শ্রীধর। কিন্তু নখ কাটার একটাই শর্ত ছিল তার। নখ যেন সংরক্ষণ করা হয়। তার ইচ্ছাকে প্রাধান্য দিতে খোঁজখবরও শুরু হয়। তাকে সম্মান জানাতে রিপ্লিস বিলিভ ইট অর নট মিউজিয়াম কর্তৃপক্ষ এগিয়ে আসে। সেখানেই সংরক্ষিত হয় শ্রীধরের নখ।

নিউইয়র্কে রিপ্লির সংগ্রহশালায় তা সংরক্ষিত থাকবে। নখ কাটানোর জন্য শ্রীধরকে নিউইয়র্কে নিয়ে যায় রিপ্লি কর্তৃপক্ষ। সেখানে এই নখ কাটা উপলক্ষে একটি অনুষ্ঠানেরও আয়োজন করা হয়। পরে চিকিৎসক আনিয়ে কাটা হয় শ্রীধরের দীর্ঘতম নখ। গিনেস বুক অফ ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসের নথি বলছে, এতদিনে শ্রীধরের বাম হাতের নখের মোট দৈর্ঘ্য হয়েছে ৯০৯.৬ সেন্টিমিটার। এর মধ্যে বাম হাতের বুড়ো আঙুলের নখের দৈর্ঘ্য সবচেয়ে বেশি। ১৯৭.৮ সেন্টিমিটার অর্থাৎ প্রায় ২ মিটার।

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech