ন্যাটোর ব্যয় নিয়ে মিথ্যা বলছেন ট্রাম্প!

  

পিএনএস ডেস্ক : ন্যাটো সামরিক জোটের ব্যয় বাড়ানোর বিষয়ে সদস্য দেশগুলো রাজি হয়েছে বলে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প যে দাবি করেছেন তা নাকচ করেছে ইতালি ও ফ্রান্স।

ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাকরন বলেছেন, মার্কিন প্রেসিডেন্ট যা দাবি করছেন তা সঠিক নয়; বর্তমান ব্যয়ের চেয়ে ন্যাটো এই মুহূর্তে সামরিক বাজেট বাড়ানোর কোনো পরিকল্পনা করছে না। গতকাল (বৃহস্পতিবার) বেলজিয়ামের রাজধানী ব্রাসেলসে ন্যাটো জোটের শীর্ষ সম্মেলনের শেষ দিনে ট্রাম্প টুইটার বার্তায় দাবি করেন, “ন্যাটো সদস্য দেশগুলো জোটের জন্য তাদের জিডিপি’র শতকরা দুই ভাগের জায়গায় চার ভাগ ব্যয় করতে রাজি হয়েছে।” কিন্তু ম্যাকরন এক সংবাদ সম্মেলনে ট্রাম্পের এ বক্তব্যের বিষয়ে আপত্তি জানান। তিনি সুস্পষ্ট করে বলেন, এ ধরনের কোনো সমঝোতা প্রতিষ্ঠিত হয় নি।

ম্যাকরন বলেন, সম্মেলনের যে চূড়ান্ত ঘোষণা প্রকাশ করা হয়েছে তাতে ন্যাটো জোটের জন্য ২০২৪ সাল থেকে শতকরা দুই ভাগ ব্যয় বাড়ানোর বিষয়ে নিশ্চয়তা দেয়া হয়েছে; এর চেয়ে বেশি কিছু না।

ট্রাম্প যে বাজেট বাড়ানোর ব্যাপারে চাপ সৃষ্টি করে চলেছেন তা নিয়ে ম্যাকরন বলেন, “আমি জানি না যে, এটা কত ভালো পদক্ষেপ এবং আমাদের সম্মিলিত নিরাপত্তার জন্য কতটা দরকার।”

ইতালির প্রধানমন্ত্রী জুসেপে কোন্তেও ফরাসি প্রেসিডেন্টের সুরে কথা বলেছেন। তিনি ন্যাটো সামরিক বাজেট বাড়ানোর কথা নাকচ করে বলেন, “ইতালি তার প্রতিশ্রুতি মতো অর্থ দিয়ে যাচ্ছে এবং ব্যয় বাড়নোর বিষয়ে তাকে কিছু বলা হয় নি। ফলে নতুন বাড়তি ব্যয়ের প্রশ্নও নেই।” তিনি আরো বলেন, “আমার কান কখনো শোনে নি যে, প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ন্যাটো জোট ছাড়ার হুমকি দিয়েছেন। ফলে আমি খবরটি নিশ্চিত করতে পারছি না। যদি সম্মেলনের অবকাশে তিনি এমন কোনো কিছু বলে থাকনে তাহলে আমি তা জানি না।”

ন্যাটো সম্মেলনের সময় ট্রাম্প সদস্য দেশগুলোকে ব্যয় বাড়ানোর বিষয়ে খুবই চাপ সৃষ্টি করেন এবং আগামী জানুয়ারি থেকে প্রতিটি দেশের জিডিপি’র শতকরা আরো দুই ভাগ অর্থ ব্যয় বাড়ানোর প্রতিশ্রুতি দিতে বলেন। সম্মেলন শেষে ট্রাম্প বলেন, বিষয়টিতে সব দেশ একমত হয়েছে।

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech