জি-২০ দাঙ্গাবাজদের ধরতে ইউরোপ জুড়ে অভিযান

  


পিএনএস ডেস্ক: ‘শীর্ষ অপরাধীদের’ বিরুদ্ধে ২০১৭ সালে জার্মানির হামবুর্গে জি-২০ সম্মেলনে দাঙ্গার অভিযোগ রয়েছে। চার সন্দেহভাজনকে খুঁজতে এবার ইউরোপ জুড়ে অভিযানে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছে হামবুর্গ পুলিশ।

সন্দেহভাজনদের ছবিও প্রকাশ করেছে পুলিশ, যাদের মধ্যে এক নারীও রয়েছেন। ইউরোপের নাগরিকদের এদের বিষয়ে তথ্য দেয়ার অনুরোধও জানিয়েছে পুলিশ।

গত বছরের ৬ জুলাই হামবুর্গের এলব্খাউসে স্ট্রিটে ‘নরকে স্বাগতম’ স্লোগান নিয়ে বিক্ষোভ শুরু হয়। কিন্তু দ্রুতই সহিংস রূপ নেয় সেই বিক্ষোভ। ঘটানো হয় একের পর এক অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা।

কয়েকশ উগ্র বামপন্থি অ্যাক্টিভিস্ট তথাকথিত ‘ব্ল্যাক ব্লক’ তৈরি করে পুলিশের সাথে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। পরপর দুদিন ধরে বিভিন্ন স্থানে চলে তাণ্ডব। যে চার জনের ছবি জার্মান পুলিশ প্রকাশ করেছে, তারা সে সব ঘটনায় জড়িত বলে ধারণা তাদের।

ট্রাম্প যাবেন শোয়ানেনভিক রাস্তা দিয়ে। তাই সে রাস্তাটি ব্লক করেছিলেন প্রতিবাদকারীরা। কিন্তু পুলিশ তাদের ছত্রভঙ্গ করে দিয়েছে জলকামান দিয়ে পানি ছুড়ে।

এই ঘটনার তদন্তে গঠিত বিশেষ কমিশনের প্রধান ইয়ান হিবার জানান, ‘এরা জি-২০ দাঙ্গার শীর্ষ অপরাধী’। তিনি আরো বলেন, এদের কর্মকাণ্ডের সাথে সমাবেশের অধিকারের কোনো সম্পর্ক নেই। ‘এটি ভয় ও ত্রাস ছড়ানোর উদ্দেশ্যে পরিকল্পিত একটি কমান্ডো অপারেশন ছিল’।

হামবুর্গে ৩৫ বছরের এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তারের পর এই অভিযানের ঘোষণা এলো। ‘ব্ল্যাক ব্লক’ তদন্তকারীরা গত বছর থেকেই বিভিন্ন জায়গায় অভিযান চালাচ্ছেন। অবশ্য হামবুর্গে আটক ব্যক্তির বিরুদ্ধে কী অভিযোগ, তা জানায়নি পুলিশ।

চার সন্দেহভাজনের বিরুদ্ধে শান্তি বিনষ্ট, পুলিশের কাজে বাধা দেয়া ও হামলা চালানো, সুপারমার্কেটে লুটতরাজ চালানো এবং সড়কে ব্যারিকেড তৈরি করে অগ্নিকাণ্ডের অভিযোগ আনা হয়েছে।

ইউরোপ জুড়ে যে অভিযান চালানো হবে, তাতে মূল লক্ষ্য হিসেবে ছিল ইটালি, স্পেন, ফ্রান্স ও সুইজারল্যান্ড। তবে এবার অস্ট্রিয়া, নেদারল্যান্ডস, বেলজিয়াম, ডেনমার্ক, সুইডেন, ফিনল্যান্ড ও গ্রিসেও চালানো হবে অভিযান। দাঙ্গায় জড়িতদের বেশিরভাগই জার্মানির বাইরে থেকে আসা বলে ধারণা পুলিশের।

পিএনএস/আনোয়ার

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech