পাকিস্তানে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কড়া নজরদারি

  

পিএনএস ডেস্ক :সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে নজদারি বাড়াচ্ছে পাকিস্তান সরকার৷ সরকারের দাবি, ‘হেট স্পিচ ও চরমপন্থা’ ঠেকাতে এ ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে৷ চরমপন্থা ছড়ানোর অভিযোগে কয়েকজনকে আটকও করা হয়েছে৷

পাকিস্তানের তথ্য মন্ত্রী ফাওয়াদ চৌধুরী জানান, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম নিয়ন্ত্রণে আনতে বিশেষ ব্যবস্থা নিতে যাচ্ছে সরকার৷ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মানহানিকর পোস্ট দেয়ার অভিযোগে কর্তৃপক্ষ একজন সাংবাদিককে গ্রেপ্তার করার পর তথ্যমন্ত্রী এ কথা জানান৷ মঙ্গলবার ওই সাংবাদিককে আটক করা হয়।

বার্তা সংস্থা এএফপির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, পাকিস্তানের সরকারি কর্মকর্তাদের অনেকের বিরুদ্ধেই গণমাধ্যমের উপর চাপ প্রয়োগের অভিযোগ রয়েছে৷ গত কয়েক বছরে দেশটির কয়েকশ' সংবাদমাধ্যমের ওয়েবসাইট ও বেশ কিছু নাগরিকের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম অ্যাকাউন্ট বন্ধ করা হয়েছে৷

পাকিস্তানের অনলাইন অ্যাক্টিভিস্ট ও ব্লগারদেরকে বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশিত লেখার জন্য প্রতিনিয়তই হুমকি দেয়া হচ্ছে বলেও প্রতিবেদনে জানিয়েছে এএফপি।

দেশটির মূলধারার গণমাধ্যমকেও প্রতিনিয়ত সরকারের চাপের মুখে থাকতে হয়৷ সরকারের চাপের মুখে গত মঙ্গলবার নিউইয়র্ক টাইমসে প্রকাশিত একটি নিবন্ধ পাকিস্তানের একটি সংবাদমাধ্যম প্রকাশ করতে পারেনি৷ নিউইয়র্ক টাইমসে প্রকাশিত ওই নিবন্ধটিতে পাকিস্তানের সেনাবাহিনীর সমালোচনা করা হয়েছিল৷

তবে পাকিস্তান সরকার বলছে, দেশে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম নিয়ন্ত্রণ করা জরুরি হয়ে পড়েছে৷ তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘বেনামী ডিজিটাল মিডিয়ার প্রভাব বেড়েই চলেছে৷ এটি এখন দেশের মূলধারার গণমাধ্যমের উপর প্রভাব ফেলতে শুরু করেছে৷’

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech