স্ত্রীর ভালোবাসার পরীক্ষা নিতে ট্রাকের সামনে স্বামী (ভিডিও)

  



পিএনএস ডেস্ক: যখন একজন আরেকজনের প্রেমে পড়েন তখন জানতে চাওয়া স্বাভাবিক যে প্রিয় মানুষটি তাকে কতটুকু ভালোবাসে। ভালোবাসার প্রমাণ দিতে অ্যাসিড কিংবা ধারালো ব্লেড দিয়ে হাত কেটে প্রিয়জনের নাম লেখার ঘটনাও অনেকের জানা। তবে চীনের এক ব্যক্তি ভিন্ন কিছুই করে দেখালেন। তিনি ভালোবাসার প্রমাণ দিতে নয়, নেয়ার জন্য এক অদ্ভূত পদ্ধতি বেছে নিয়েছেন। স্বয়ং মৃত্যুর ঝুঁকি নিয়ে চলন্ত ট্রাকের সামনে দাড়িয়ে পড়লেন।

স্ত্রী তাকে কতটা ভালবাসে-তা জানতে রাতের বেলায় রাস্তার মাঝখানে দাঁড়িয়ে পড়লেন ওই ব্যক্তি। স্ত্রী বারবার চেষ্টা করেও তাকে ফেরাতে পারেননি। শেষে একটি চলন্ত ট্রাকের ধাক্কায় রাস্তার পাশে লুটিয়ে পড়েন তিনি। এরপর ওই ব্যক্তির স্ত্রীই অ্যাম্বুলেন্সে খবর দেন। পাশাপাশি খবর দেয়া হয় পুলিশেও।

জানা গেছে, আহত ব্যক্তির নাম প্যান এবং তার স্ত্রীর নাম ঝৌ। পূর্ব চীনের ঝেজিয়াং প্রদেশের লিসুইয়ের বাসিন্দা তারা। গোটা ঘটনাটির ভিডিও ধরা পড়েছে ট্রাফিক ক্যামেরাতে। সেখানে দেখা যাচ্ছে, প্রথমে প্যান তার স্ত্রীর সঙ্গে ঝগড়া করছেন। এরপরই হঠাৎই রাস্তার মাঝখানে দাঁড়িয়ে পড়লেন। পাশ থেকে দ্রুতবেগে গাড়ি চলে গেলেও কোনো ভ্রূক্ষেপ নেই তাঁর। ঝৌ স্বামীকে সরিয়ে আনতে প্রাণপণ চেষ্টা করলেও শেষ পর্যন্ত ব্যর্থ হন।

শেষে একটি দ্রুতগতিতে আসা ট্রাকের ধাক্কায় ছিটকে পড়েন প্যান। এরপর ঝৌ নিজেই অ্যাম্বুলেন্সে ফোন করেন। ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয় পুলিসও। পরে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসকরা প্যানের চিকিৎসা শুরু করেন।

দেখা যায়, প্রাণসংশয় না হলেও মাথার এবং বুকের কিছু হাড়ে আঘাত পেয়েছেন প্যান। পরে প্যান বলেন, ‘সকাল থেকে স্ত্রীর সঙ্গে ঝগড়া করেছি। এরপর মদ্যপান করতে চলে যাই। তারপর ফেরার পথে ফের স্ত্রীর সঙ্গে ফোনে ঝগড়া শুরু করি। সে ঘটনাস্থলে আসার পরও আমাদের ঝামেলা চলতে থাকে। আমি ওই কাজ করে দেখতে চেয়েছিলাম সে আমাকে কতটা ভালোবাসে। তখনই আমাকে ট্রাকটি এসে ধাক্কা মারে।’ এরপরই প্যান স্বীকার করে নেন, ‘তিনি আসলে ভুল কাজ করেছেন।’

পিএনএস/হাফিজুল ইসলাম

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech