মসজিদে হামলা: নিউজিল্যান্ড গভর্নরকে ফোন করে যা বললেন এরদোগান!

  

পিএনএস ডেস্ক: নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চ শহরে দুটি মসজিদে সন্ত্রাসী হামলার বিষয়ে দেশটির গভর্নর প্যাটসি রেড্ডির সঙ্গে টেলিফোনে কথা বলেছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যিপ এরদোগান। ওই ঘটনায় নামাজের জন্য আসা ৪৯ জন মুসল্লি নিহত হন।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন তুর্কি রাষ্ট্রপতির গণসংযোগ বিভাগের প্রধান ফখরুদ্দিন আলতুন। খবর ডেইলি সাবাহ।

ফোনালাপে প্রেসিডেন্ট এরদোগান নিহতদের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে অতিদ্রুত নিউজিল্যান্ড সফর করার কথা প্যাটসি রেড্ডিকে জানিয়েছেন বলে নিশ্চিত করেছেন ফখরুদ্দিন আলতুন। তুরস্কের ভাইস প্রেসিডেন্ট ফুয়াত উকতাই, পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেভলুত চাভুসওগ্লু নিউজিল্যান্ডের পথে রয়েছেন।

তারা দেশটির দায়িত্বশীলদের সঙ্গে এ হামলার পরবর্তী পরিস্থিতি নিয়ে মতবিনিময় এবং মুসলমানদের নিরাপত্তা বিষয়ে কথা বলবেন।

এদিকে শুক্রবার এক নির্বাচনী সভায় এরদোগান তার সমর্থকদের উদ্দেশে বক্তৃতায় বলেছেন, ‘খুনি আমাদের দেশ ছাড়াও সব মুসলমানকে লক্ষ্য করে একটি ইশতেহার প্রকাশ করেছে। যাতে ইসলামবিরোধীদের বিকৃত মানসিকতা ও বৈরী মনোভাবের বিষয়টি ফুটে ওঠেছে।

প্রসঙ্গত, শুক্রবার (১৫ মার্চ) দুপুর ১টা ৪০ মিনিটে জুমার নামাজের সময় মসজিদে হামলা চালায় মুসলিম বিদ্বেষী অস্ট্রেলিয়ান এক নাগরিক। প্রথমে আল নূর মসজিদে হামলা চালায় সে। পরে পার্শ্ববতী লিনউড মসজিদ হামলা চালায়। নৃশংস ওই হত্যাকাণ্ডের পুরো ঘটনা ফেসবুক লাইভে প্রচার করে হামলাকারী।

এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত ৪৯ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে।

এদিকে এ ঘটনায় সেখানে অবস্থান করা বাংলাদেশ জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা অল্পের জন্য প্রাণে বেঁচে গেছেন। তারা ওই মসজিদে নামাজ পড়তে যাচ্ছিলেন। তারা মসজিদে প্রবেশের মুহূর্তে এই হামলা চালানো। ক্রিকেটাররা দৌড়ে সেখান থেকে নিরাপদে আশ্রয় নেন।

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech