ইরানের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্র যুদ্ধ চায় না: পম্পেও

  



পিএনএস ডেস্ক: মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও বলেছেন, ইরানের সঙ্গে যুদ্ধ চায় না যুক্তরাষ্ট্র।

ওয়াশিংটন ও তেহরানের চলমান উত্তেজনার মধ্যে রাশিয়া সফরকালে পম্পেও এই মন্তব্য করেন। আজ বুধবার বিবিসি অনলাইনের প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়।

পম্পেও বলেন, ইরান একটি স্বাভাবিক দেশের মতো আচরণ করবে বলে আশা করে যুক্তরাষ্ট্র। তবে যুক্তরাষ্ট্রের স্বার্থে কোনো আঘাত এলে তার জবাব তারা দেবে।

ইরানের সর্বোচ্চ ধর্মীয় নেতা আয়াতুল্লাহ আলী খামেনিও বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে তাঁরাও কোনো যুদ্ধ চান না।

যুক্তরাষ্ট্র ও ইরানের মধ্যে উত্তেজনা বেড়ে যাওয়ায় মধ্যপ্রাচ্যে একধরনের ‘যুদ্ধাবস্থা বিরাজ’ করছে।

গত সপ্তাহে যুক্তরাষ্ট্র পারস্য উপসাগরে যুদ্ধজাহাজ ও ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষাব্যবস্থা মোতায়েনের ঘোষণা দেয়।

পারস্য উপসাগরে হরমুজ প্রণালির কাছে সৌদি আরবের চারটি জাহাজে রহস্যজনক অন্তর্ঘাতমূলক হামলার ঘটনায় অঞ্চলটিতে উত্তেজনা আরও বেড়ে যায়। গত রোববার এই হামলা হয়।

মার্কিন তদন্তকারীদের ধারণা, ইরান বা ইরান-সমর্থিত কোনো গোষ্ঠী এই হামলায় জড়িত।

তবে হামলার ঘটনায় ইরানের জড়িত থাকার কোনো প্রমাণ এখন পর্যন্ত মেলেনি। ইরানও দাবি করেছে, তারা এই হামলার সঙ্গে জড়িত নয়। তারা তদন্তের দাবি জানিয়েছে।

রাশিয়ার সোচি শহরে দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরভের সঙ্গে বৈঠক করেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী পম্পেও। তিনি বলেন, ইরানের সঙ্গে তাঁর দেশ যুদ্ধ চায় না। তবে তাঁরা ইরানকে বিষয়টি স্পষ্ট করেছে যে যদি আমেরিকার স্বার্থে আঘাত আসে, তবে তাঁরা নিশ্চিতভাবে তার উপযুক্ত জবাব দেবেন।

পিএনএস/আনোয়ার

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech