কড়া নিরাপত্তায় চলছে লোকসভা নির্বাচনের ভোট গণনা

  

পিএনএস ডেস্ক : বিশ্বের বৃহত্তম গণতান্ত্রিক দেশ ভারতে মোদিঝড় এখনও কি আগের মতোই শক্তিশালী? নাকি অলৌকিকভাবে আবার ক্ষমতায় ফিরবে দেশটির প্রাচীনতম দল কংগ্রেস ও তার মিত্ররা? এ প্রশ্ন এখন ঘুরপাক খাচ্ছে ভূ-ভারতের শতকোটি মানুষের অন্তরে। এ সব জল্পনা-কল্পনার অবসান হচ্ছে আজ।

বৃহস্পতিবার (২৩ মে) সকাল ৮টায় প্রার্থীদের প্রতিনিধিদের উপস্থিতিতে শুরু হয়েছে ১৭তম লোকসভা নির্বাচনের ভোট গণনা। ভোট গণনাকে কেন্দ্র করে পশ্চিমবঙ্গসহ কলকাতায় ব্যাপক নিরাপত্তা গ্রহণ করেছে ইসি। রাজ্যে গণনাকেন্দ্র ঘিরে তিনস্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা করা হয়েছে।

স্ট্রংরুম (ইভিএম রাখার কক্ষ) ও গণনা হলে থাকবে কেন্দ্রীয় বাহিনী। বাইরে অর্থাৎ মূল গেটে থাকবে সশস্ত্র রাজ্য পুলিশ। সব মিলে রাজ্যে মোতায়েন করা হবে আধা সামরিক বাহিনীর ২০ হাজার সদস্য।

গণনাকেন্দ্রের ১০০ মিটার পর্যন্ত ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে। মোবাইল ফোন নিয়ে গণনা হলে প্রবেশ সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ। কলকাতায় ১০টি স্ট্রংরুমে কড়া নিরাপত্তায় রয়েছে ইভিএম মেশিন।

ভোট গণনার পুরো প্রক্রিয়াই হবে ভিডিও ক্যামেরার সামনে। ভোট গণনায় প্রত্যেক প্রার্থীর প্রতিনিধিদের পাশাপাশি থাকবেন নির্বাচনী পর্যবেক্ষকেরা। প্রথমে গোনা হবে পোস্টাল ব্যালট। এর পরই পরেই ইভিএম গণনা শুরু হবে। প্রতিটি ইভিএম গণনা প্রক্রিয়ায় লাগবে প্রায় আধঘণ্টা।

ইভিএম গণনার পরেই ভিভিপ্যাট গণনা করা হবে। লটারিতে বেছে নেয়া হবে প্রতি বিধানসভার ৫টি বুথ। গণনা হবে লটারিতে বেছে নেয়া ৫টি বুথের ভিভিপ্যাট। প্রথমবারের মতো ভিভিপ্যাট যন্ত্র ব্যবহারের কারণে ভোটের ফল ঘোষণা হতে কিছুটা দেরি হতে পারে বলে মনে করছে নির্বাচন কমিশন। কমিশনের কর্মকর্তারা মনে করছেন, সকাল ৮টা থেকে গণনা শুরু হলেও অনেক রাতে হয়তো ফল জানা যাবে।

সাত দফায় অনুষ্ঠিত লোকসভা নির্বাচনের ভোটগ্রহণ শেষ হয়েছে ১৯ মে। শেষ দফার ভোট গ্রহণ শেষ হওয়ার পর ১৪টি বুথফেরত জরিপের মধ্যে ১২টিতেই আভাস দিয়েছে আবার বিপুল সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে সরকার গড়তে চলেছে বিজেপি নেতৃত্বাধীন জোট এনডিএ।

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech