‘বাংলাদেশি শ্রমিক নিয়োগ সহজ হচ্ছে’

  

পিএনএস ডেস্ক: মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের আইন ও সংসদবিষয়ক মন্ত্রী ওয়াবি দাতুক লিউ ভোই কিয়ং বলেছেন, ‘সরকার বাংলাদেশি শ্রমিকদের নিয়োগ ও কাজ উভয়ই সহজ করে দিচ্ছে। সব নিয়মশৃঙ্খলা অনুযায়ী হবে। আর এ সহজীকরণে একটি স্বাধীন কমিটি কাজ করছে।’

দেশটির মন্ত্রী ওয়াবি দাতুক লিউ ভোই কিয়ং-এর সঙ্গে বৈঠক করেছেন বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মহ. শহীদুল ইসলাম। ১৫ জুলাই সোমবার স্থানীয় সময় বেলা সাড়ে ১১টায় দেশটির পার্লামেন্ট ভবনে মন্ত্রীর কার্যালয়ে এ বৈঠক হয়।

বৈঠককালে মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের লিগ্যাল ডিপার্টমেন্টের ডিরেক্টর জেনারেল দাতু জুনাইদা বিনতে কামারুদ্দিন, নূর আজমি বিন আলিমাত ও হাইকমিশনের ডিফেন্স উইং প্রধান এয়ার কমডোর মো. হুমায়ূন কবিরসহ মন্ত্রীর কার্যালয়ের অন্যান্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠকে উভয় দেশের মধ্যে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক উন্নয়নে এবং আঞ্চলিক অর্থনৈতিক সহযোগিতার মাধ্যমে বিভিন্ন বিষয়ে একমত পোষণ করেছেন এবং উভয় দেশেই সম্পর্কের নব উন্মেষ হবে এ প্রত্যাশা করে মন্ত্রী আরও বলেন, মিয়ানমারের রাখাইন প্রদেশের নির্যাতিতরা বিপুল পরিমাণে বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে এবং বাংলাদেশ এসব অসহায় লোকদের পাশে থেকে যে মানবতার দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে তাতে সাধুবাদ জানিয়ে রোহিঙ্গা সমস্যার দ্রুত সুষ্ঠু সমাধানের আশ্বাস দেন।

এ ছাড়া প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বর্তমান সরকারের সুশাসন ও আইনের শাসন প্রতিষ্ঠার প্রচেষ্টার প্রশংসা করে মন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের আইন কমিশন এবং বাংলাদেশ সরকারের আইন সংস্কারের বিষয়টি বোঝার জন্য তিনি শিগগিরই বাংলাদেশ সফরের পরিকল্পনা করছেন।

মন্ত্রী বলেন, ‘বিদেশি কর্মীরা যাতে স্বল্প খরছে নিশ্চিন্তে কাজে যোগদান করতে পারে এবং মধ্যস্বত্বভোগীদের দ্বারা প্রতারণার শিকার না হয় সেদিকে আমাদের নজর থাকবে।’

মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের আইন ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী ওয়াবি দাতুক লিউ ভোই কিয়ং এর সঙ্গে বৈঠককালে রাষ্ট্রদূত মহ. শহীদুল ইসলাম বলেন, ‘মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশের অনেকের কর্মসংস্থান হয়েছে এবং হচ্ছে।’ এজন্য মালয়েশিয়া সরকারের প্রতি ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানান।

মালয়েশিয়া বাংলাদেশকে সোর্স কান্ট্রি করে শ্রম নিয়োজন শুরু করেছে। যারা বৈধতা-সংক্রান্ত সমস্যায় আছে তাদের বিষয়টি দ্রুত সমাধানের জন্য অনুরোধ করেন। এ বিষয়ে মালয়েশিয়ার মন্ত্রী লিউ ভোই কিয়ং আশা প্রকাশ করে বলেন, ‘নিয়ম-কানুন ও পলিসি সংশোধন করে বিদেশি শ্রমিক নিয়োগসংক্রান্ত সমস্যা সমাধানের চেষ্টা চলছে। অনিয়ম বা বিশৃঙ্খলার পুনরাবৃত্তি হোক তা মালয়েশিয়া সরকার চায় না।’

মালয়েশিয়ার মন্ত্রী বলেন, ‘বাংলাদেশ এখন অর্থনৈতিকভাবে অনেক উন্নতি করছে। আঞ্চলিক অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি প্রতিষ্ঠার ক্ষেত্রেও বাংলাদেশ অগ্রণী ভূমিকা রেখে যাবে।’

রাষ্ট্রদূত শহীদুল ইসলাম বলেন, ‘বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ অর্থনৈতিকভাবে সমৃদ্ধতা পেয়েছে। মালয়েশিয়ার সঙ্গে বাংলাদেশের বাণিজ্য গ্যাপ অনেক বেশি যা মালয়েশিয়ার অনুকূলে। বাংলাদেশি বেশি বেশি পণ্যের প্রবেশাধিকার দিলে এ বৈষম্য কমে যাবে।’

পিএনএস/ হাফিজুল ইসলাম

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech