ইরানি তেল ট্যাংকার হস্তান্তরের মার্কিন অনুরোধ প্রত্যাখ্যান জিব্রাল্টারের

  


পিএনএস ডেস্ক: ব্রিটেনের স্বায়ত্বশাসিত দূরবর্তী অঞ্চল জিব্রাল্টারের স্থানীয় সরকার বহুল আলোচিত ইরানি তেল ট্যাংকার হস্তান্তরের মার্কিন অনুরোধ আনুষ্ঠানিকভাবে প্রত্যাখ্যান করেছে। জিব্রাল্টার গতকাল (রোববার) এক সরকারি ঘোষণায় বলেছে, ইউরোপীয় ইউনিয়ন বা ইইউ’র নিষেধাজ্ঞা ব্যবস্থার সঙ্গে মার্কিন আবেদন সামঞ্জস্যপূর্ণ না হওয়ায় তা প্রত্যাখ্যান করা হলো।

গত বৃহস্পতিবার জিব্রাল্টারের সুপ্রিম কোর্ট ইরানি তেল ট্যাংকার মুক্ত করার নির্দেশ দেয়ার পর তেহরানের পক্ষ থেকে এটির নাম পরিবর্তন করা হয়। আগে এটির নাম গ্রেস-ওয়ান থাকলেও বর্তমানে এই সুপার তেল ট্যাংকারের নাম আদরিয়ান দারিয়া।

জিব্রাল্টার সরকারের ঘোষণায় বলা হয়েছে, ওয়াশিংটন ইরানি তেল ট্যাংকারটির আটকাদেশের মেয়াদ বাড়িয়ে এটিকে ওয়াশিংটনের হাতে তুলে দেয়ার যে আবেদন জানিয়েছে তা তেহরানের ওপর ওয়াশিংটনের আরোপিত একতরফা নিষেধাজ্ঞার সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ হলেও ইইউ’র নিষেধাজ্ঞার সঙ্গে মানানসই না হওয়ায় তা প্রত্যাখ্যান করা হয়েছে।

ব্রিটিশ নৌবাহিনী গত ৪ জুলাই জিব্রাল্টার প্রণালীর আন্তর্জাতিক পানিসীমা থেকে ২১ লাখ ব্যারেল তেলবাহী ইরানি ট্যাংকার ‘গ্রেস-ওয়ান’ আটক করে। ট্যাংকারটি সিরিয়ায় যাচ্ছিল বলে দাবি করে ব্রিটেন জানায়, সিরিয়ার ওপর ইউরোপীয় ইউনিয়নের নিষেধাজ্ঞা কার্যকর করতে গিয়ে ইরানি তেল ট্যাংকার আটক করা হয়েছে। কিন্তু পশ্চিমা গণমাধ্যমগুলো জানায়, ইরানের ওপর আরোপিত আমেরিকার একতরফা নিষেধাজ্ঞা কার্যকর করতে ওয়াশিংটনের অনুরোধে লন্ডন ওই জলদস্যুবৃত্তি করেছে।

এরপর কূটনৈতিক চ্যানেলে ইরানের ব্যাপক প্রচেষ্টার পর গত বৃহস্পতিবার জিব্রাল্টারের সুপ্রিম কোর্ট সুপার তেল ট্যাংকারটি মুক্ত করার নির্দেশ দেয়। কিন্তু শনিবার মার্কিন বিচার বিভাগ তেল ট্যাংকারটিকে মুক্ত না করে আমেরিকার কাছে হস্তান্তর করার জন্য জিব্রাল্টারকে অনুরোধ জানায়। ওই অনুরোধ পাওয়ার পরপরই জিব্রাল্টার জানিয়েছিল, তারা তেল ট্যাংকারটি মুক্ত করে দেয়ার পর আমেরিকার অনুরোধ বিবেচনা করবে। কিন্তু সে অবস্থান পরিবর্তন করে জিব্রাল্টার রোববার সরাসরি আমেরিকার অনুরোধ আনুষ্ঠানিকভাবে প্রত্যাখ্যান করল। সূত্র : পার্সটুডে

পিএনএস/আনোয়ার

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech