মোদীর ১০০ দিনে সাড়ে ১২ লাখ কোটি রুপি হাওয়া

  

পিএনএস ডেস্ক:নরেন্দ্র মোদীর দ্বিতীয় বার ক্ষমতাসীন হওয়ার পর প্রথম তিন মাসে ভারতের অর্থনীতি পিছিয়ে পড়েছে প্রায় প্রতিটি ক্ষেত্রে। বলা হচ্ছে, মাত্র ১০০ দিনে বিনিয়োগকারীদের সাড়ে ১২ লাখ কোটি রুপির সম্পদ ‘উধাও’ হয়ে গেছে। গত ৩০ মে নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বাধীন ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি) দ্বিতীয় মেয়াদে দেশটিতে সরকার গঠন করে।

তিন মাসে ভারতের শেয়ারবাজারের সূচক কমেছে ৫ দশমিক ৯৬ শতাংশ। পয়েন্টের নিরিখে ২ হাজার ৩৫৭। গত ৩০ মে থেকে ন্যাশনাল স্টক এক্সচেঞ্জের (এনএসই) নিফটি সূচক পড়েছে অন্তত ৫০। শতাংশের হিসেবে ৭.২৩ বা ৮৫৮ পয়েন্ট।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, দেশের অর্থনীতির এই মন্দার সময় যা সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন ছিলো সেই বিদেশি বিনিয়োগে ঘাটতি দেখা দেয়ার জন্য দায় যদি কারো থাকে তা হলে তা কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামনের। দ্বিতীয় বার ক্ষমতায় আসার পর তার প্রথম বাজেটে বিদেশি বিনিয়োগের ওপর করের বোঝা খুব বেশি বাড়িয়ে দিয়েছেন নির্মলা। ফলে, ভারতের শেয়ার বাজারে বিদেশি বিনিয়োগকারীরাই সবচেয়ে বেশি করে শেয়ার বেঁচেছেন মোদী সরকার দ্বিতীয় বার ক্ষমতাসীন হওয়ার পর।

ন্যাশনাল সিকিউরিটিজ ডিপোজিটরি লিমিটেডের (এনএসডিএল) তথ্য বলছে, গত ৩০ মে থেকে এ পর্যন্ত ভারতের বাজারে থাকা ২৮ হাজার ২৬০ কোটি ৫০ লাখ রুপির শেয়ার বিক্রি করে দিয়েছেন বিদেশি বিনিয়োগকারীরা।

শুধু তাই নয়, গত তিন মাসে রাষ্ট্রায়ত্ত্ব ব্যাংকগুলোর শেয়ার সূচক পড়েছে সবচেয়ে বেশি। ২৬.১৩ শতাংশ। তার তুলনায় বেসরকারি ব্যাংকগুলোর শেয়ারের সূচক পড়েছে কম হারে। ১২.৪৮ শতাংশ। ধাতু, সংবাদমাধ্যম, গাড়ি ও ওষুধ প্রস্তুতকারক সংস্থাগুলোর শেয়ারের সূচকের রাষ্ট্রায়ত্ত্ব ব্যাংকগুলোর তুলনায় কম পড়েছে। দেশের অর্থনীতির প্রাণ ধাতু শিল্পের সূচকও পড়েছে প্রায় ২০ শতাংশ।

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech