আঘাত হেনেছে ঘূর্ণিঝড় হাগিবিস, নিহত ১

  

পিএনএস ডেস্ক:জাপানের রাজধানীতে শনিবার আঘাত হেনেছে শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় হাগিবিস। এতে কমপক্ষে একজন নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। তবে তিনি কীভাবে মারা গেছেন তা জানা যায়নি। জানা যায়নি তার পরিচয়ও।

ঝড়ের সঙ্গে চলছে প্রচণ্ড বৃষ্টিপাত। ফলে রাজধানী টোকিওর বিভিন্ন স্থানে বন্যা দেখা দিয়েছে বলে জানা গেছে। স্থানীয় আবহাওয়াবিদরা সতর্ক করে দিয়ে বলেছিলেন, গত ৬০ বছরের মধ্যে এটি হতে চলেছে জাপানে আঘাত হানা সবচেয়ে ভয়াবহ ঘূর্ণিঝড়।

ফলে এই ঝড় আঘাত হানার আগেই নেয়া হয়েছে ব্যাপক নিরাপত্তামূলক ব্যবস্থা। ঝড় শুরু হওয়ার আগেই টোকিওসহ বিভিন্ন এলাকাগুলো থেকে ৩০ লাখের বেশি মানুষ সরিয়ে নেয়া হয়েছে।

এর আগে জাপানের আবহাওয়া অধিদপ্তরের বরাত দিয়ে ব্রিটিশ সংবাদ মাধ্যম রয়টার্স জানায়, শনিবার ঘণ্টায় প্রায় ১৮০ কিলোমিটার বেগে জাপানের ঘনবসতিপূর্ণ দ্বীপ হনশুতে আঘাত হানতে চলেছে ঘূর্ণিঝড় হাগিবিস। এই ঘূর্ণঝড়ের জের ধরে দেশটিতে প্রবল বৃষ্টিপাত, ভয়াবহ বন্যা ও ভূমিধস হতে পরে বলেও সতর্ক করে দিয়েছে স্থানীয় আবহাওয়া দপ্তর।

সম্ভাব্য ক্ষয়ক্ষতি এড়াতে সবচেয়ে ঝুঁকিপূর্ণ এলাকাগুলো থেকে স্থানীয় নাগরিকদের সরিয়ে নিতে শুরু করেছে স্থানীয় সংস্থাগুলো। ইতিমধ্যে বন্ধ করে দেয়া হয়েছে দোকানপাট, কল-কারখানা ও রেল যোগাযোগ। ঘূর্ণিঝড়ে আক্রান্ত লোকজনের জন্য উপকূলীয় এলাকাগুলোতে খোলা হয়েছে আশ্রয় কেন্দ্র। ইতিমধ্যে বহু লোক সেখানে আশ্রয় নিয়েছে বলেও খবর পাওয়া গেছে।

জানা যায়, হাগিবিস শব্দটি এসেছে ফিলিপাইনের ট্যাগালগ ভাষা থেকে। ট্যাগালগ অর্থ গতি।

জাপনে এ ধরনের প্রাকৃতিক দুর্যোগ কোনো নতুন ঘটনা নয়। মাত্র এক মাস আগেই অন্য এক ঘূর্ণিঝড়ে দেশটির ৩০ হাজারের মতো ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত হয়েছিল। তবে জাপানে সবচেয়ে ভয়াবহ ঘূর্ণিঝড় বা টাইফুন আঘাত হেনেছিল ১৯৫৮ সালে। ক্যানোগাওয়া নামের ওই ঘূর্ণিঝড়ে তখন এক হাজারের বেশি মানুষ নিহত হয়েছিল।

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech