সিরিয়ায় তুর্কি অভিযানে পাকিস্তানের সমর্থন

  

পিএনএস ডেস্ক:সিরিয়ায় কুর্দিশ ওয়াইপিজি যোদ্ধাদের বিরুদ্ধে তুরস্কের সামরিক অভিযানে সমর্থন দিয়েছে পাকিস্তান। এমন সমর্থন দেওয়ার ঘটনা বিরল।

পাকিস্তানের পক্ষ থেকে এমন এক সময় এই প্রস্তাব দেয়া হলো যখন চলতি মাসের শেষ দিকে ইসলামাবাদ সফরে যাবেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান।

কুর্দি নেতৃত্বাধীন সিরিয়ান ডেমোক্র্যাটিক ফোর্সেসকে লক্ষ্যবস্ত করে উত্তর সিরিয়ায় বুধবার অভিযান শুরু করেছে তুরস্ক।

গত পাঁচ বছর ধরে আইএস বিরোধী লড়াইয়ে যুক্তরাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ মিত্রের ভূমিকা রেখেছে কুর্দিরা। মার্কিন নেতৃত্বাধীন অভিযানে তারা ১১ হাজার সেনা খুইয়েছে।

সিরিয়ার গৃহযুদ্ধ শুরু হওয়ার পর দেশটিতে এটি তৃতীয় হস্তক্ষেপ তুরস্কের। অভিযানে সমর্থন ও সংহতির কথা জানিয়ে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান ফোন করেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগানকে।

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় জানায়, এরদোগানকে ইমরান খান বলেছেন, সন্ত্রাসবাদ সম্পর্কিত তুরস্কের উদ্বেগকে পাকিস্তান সম্পূর্ণ উপলব্ধি করতে পেরেছে।

ইমরান খান বলেন, তুরস্কের প্রতি সংহতি ও পূর্ণ সমর্থন নিয়ে পাশে আছে পাকিস্তান। আমাদের প্রার্থনা হচ্ছে, সিরিয়া পরিস্থিতির শান্তিপূর্ণ সমাধান, নিরাপত্তা, আঞ্চলিক স্থিতিশীলতা বাড়াতে তুরস্কের চেষ্টা যাতে সফল হয়।

উত্তর সিরিয়ায় তুরস্কের অভিযানে সবুজ সংকেত দিয়ে নিজ দেশে ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। সীমান্ত থেকে মার্কিন সেনাদের সরে যাওয়ার নির্দেশ দেয়ার পরেই এ অভিযান শুরু করেছে তুরস্ক।

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন