স্ত্রীকে ধর্ষণচেষ্টা, লম্পটের পুরুষাঙ্গ কেটে দিয়েছে স্বামী

  

পিএনএস ডেস্ক : ইউক্রেনে এক ব্যক্তির বিশেষাঙ্গ কেটে নেওয়ার অভিযোগে গ্রেপ্তার করা হয়েছে অভিযুক্তকে। অভিযুক্ত ডিমিত্রি স্পাসকিন ইউক্রেনের শেভচেনকোভো গ্রামের বাসিন্দা। এ ঘটনায় উত্তপ্ত ইউক্রেন।

তবে অভিযুক্ত স্পাসকিনের অভিযোগ, ২৫ বছর বয়সী ইভচেনকো তার স্ত্রীকে শারীরিকভাবে হেনস্থা করেছে। স্থানীয় একটি রেস্তোরাঁয় তিনি, তার স্ত্রী এবং আরো কয়েকজন বন্ধুবান্ধব পার্টি করতে জমায়েত হয়েছিলেন। সেখান থেকে তিনি একটু আগে বেরিয়ে যান। আর তার স্ত্রীর বের হন আরো ঘণ্টাখানেক পর। তারপর তার স্ত্রীকে ধাওয়া করে ইভচেনকো। নানাবিধ যৌন উত্তেজক কথাবার্তা বলে তাকে উত্যক্ত করার চেষ্টাও করেন।

স্পাসকিনের স্ত্রী ইভচেনকো সেসবের কোনো উত্তর না দিয়ে চলে যেতে থাকেন। এরপর ক্ষুব্ধ হয়ে স্পাসকিনের স্ত্রীর ওপর চড়াও হন ইভচেনকো। তার হাত ধরে জোর জবরদস্তি এক জায়গায় টেনে নিয়ে ধর্ষণচেষ্টা করেন ইভচেনকো।

পুলিশের কাছে ইভচেনকো জানান, আমার স্ত্রীর গলা টিপে তাকে ধর্ষণচেষ্টা করছিল। আমি নিজের চোখে দেখেছি। আর দেখেছি বলেই আমার স্ত্রীকে শেষ পর্যন্ত ছাড়িয়ে নিয়ে আসতে পেরেছি।

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech