নির্বাসিত তরুণী ফিরতেই পিটিয়ে নগ্ন করে ঘোরানো হলো গ্রাম

  

পিএনএস ডেস্ক : পরকীয়া সম্পর্ক থাকার অভিযোগে এক নারীকে নগ্ন করে পেটানোর অভিযোগ উঠেছে ভারতের বীরভূমে। ওই নারীকে জুতা দিয়ে পেটানোর পর নগ্ন করে ঘোরানো হয়েছে সারাগ্রাম। পুরো ঘটনাটি ঘটেছে নানুর থানার সামনে। কিন্তু পুলিশ চুপ থাকার অভিযোগ রয়েছে।

অভিযোগ উঠেছে, ২০১১ সাল থেকে গ্রামেরই এক ব্যক্তির সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক ছিল ওই নারীর। বিবাহবর্হিভূত সম্পর্ক বলে গ্রামের নারীরা তার ওপর অত্যাচার চালায় এবং তাকে গ্রাম ছাড়া করে।

সে ঘটনার প্রায় আট বছর পর ফিরে এসে তিনি ভেবেছিলেন এতদিনে সব মিটে গেছে। আবার নিজের বাড়িতে থাকবেন। বাড়িতে ফিরলে পরিবারের লোকের সঙ্গে ওই তরুণীর যাবতীয় দ্বন্দ্ব ও ভুল বোঝাবুঝি মিটে যায়।

কিন্তু পাড়ার নারীরা তাকে মেনে নিতে পারেন না। গত শুক্রবার সেই অশান্তি চরমে ওঠে। গ্রামের নারীরা কোনোভাবেই তাকে গ্রামে থাকতে দিতে রাজি না। শুরু হয় মারধর। মারতে মারতে তাকে থানার সামনে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে প্রায় আধমরা অবস্থায় তাকে নগ্ন করে সারাগ্রাম ঘোরানো হয়।

পরে তাকে অত্যাচারের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে ভাইরাল হতেই টনক নড়ে পুলিশের। অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের হয়। তাদের খোঁজে তল্লাশি শুরু হয়েছে। এখনো কেউ ধরা পড়েনি।

এদিকে চলতি বছরে ভারতের লোকসভা নির্বাচনের পরই অকারণে মারধর করলে তা শাস্তিযোগ্য অপরাধ বলে বিবেচিত হয়েছে। সেই ধারায় মামলা করা হয়। কিছুদিন আগেই রাজস্থানে একই ঘটনা ঘটেছিল।

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech