৬৫ দেশে ভারতের ২৬৫ ভুয়া ওয়েবসাইট

  


পিএনএস ডেস্ক: ভারতের কূটনৈতিক স্বার্থ রক্ষায় এবং পাকিস্তানের বিরুদ্ধে জনমত গড়ে তুলতে বিশ্বজুড়ে ৬৫টি দেশে সক্রিয় রয়েছে ২৬৫টি ভুয়া নিউজ ওয়েবসাইট। সম্প্রতি কাশ্মিরের স্বায়ত্তশাসন রদ করার পর বিশ্বজুড়ে এ বিষয়ে ভারতের পক্ষে সমর্থন জোগাতে কাজ করেছে ওয়েবসাইটগুলো। এগুলো ভারতীয় নেটওয়ার্কের সাথে জড়িত। যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা, বেলজিয়াম ও সুইডেনসহ বিশ্বজুড়ে আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠান ও আইনপ্রণেতাদের প্রভাবিত করতে এসব ভুয়া সংবাদভিত্তিক ওয়েবসাইট পরিচালিত হচ্ছে। এগুলো পরিচালনা করছে ভারতীয় নেটওয়ার্ক। সম্প্রতি এনজিও ইইউ ডিজইনফোল্যাবের এক অনুসন্ধানে এমনটা বেরিয়ে এসেছে।

ইইউ ডিজইনফোল্যাবের অনুসন্ধান অনুসারে, বিলুপ্ত হয়ে যাওয়া স্থানীয় পত্রিকার নামে ভারতীয় নেটওয়ার্ক পরিচালিত এসব ভুয়া ওয়েবসাইটের নামকরণ করা হয়। এ ছাড়া সক্রিয় গণমাধ্যমের নামেও চালানো হয় একাধিক ভুয়া ওয়েবসাইট।

এই ওয়েবসাইটগুলো কেসিএনএ, ভয়েস অব আমেরিকা ও ইন্টারফেক্সের মতো বিভিন্ন বার্তা সংস্থা থেকে সংবাদ নিয়ে তা আবার প্রকাশ করে থাকে। এরকম কয়েকটি ওয়েবসাইট হচ্ছেÑ দ্য মিরর অব অস্ট্রেলিয়া ডটকম, দ্য টাইমস অব সিলন ডটকম, দ্য হুভার গেজেট ডটকম, মিয়ামিভ্যালি চ্যানেল ডটকম, টাইমস অব জেনেভা ডটকম ও দ্য ডাবলিন গেজেট ডটকম। এ ছাড়া নিউ দিল্লি টাইমস, টাইমস অব লস অ্যাঞ্জেলেস, টাইমস অব পর্তুগাল, টাইমস অব নর্থ কোরিয়া ও নিউ ইয়র্ক জার্নাল আমেরিকানসহ অন্যান্য নিউজ পোর্টালও রয়েছে। অন্যান্য বার্তা সংস্থার খবর পুনঃপ্রকাশের পাশাপাশি ভারত-সংশ্লিষ্ট উৎসব, অনুষ্ঠান ও পাকিস্তান-বিরোধী সংবাদও পুনঃপ্রকাশ করে থাকে এগুলো।

কাশ্মির ইস্যুতে জনমত গঠন
এ দিকে কোয়ার্টজ ইন্ডিয়া জানিয়েছে, ইইউ ডিজইনফোল্যাব তাদের অনুসন্ধানে প্রতারণামূলক প্রতিষ্ঠান, অপ্রচলিত গণমাধ্যম ও আইনিভাবে অস্তিত্বহীন সংগঠনের মধ্যে যোগসাজশ খুঁজে পেয়েছে। এরা সম্মিলিতভাবে ইইউ ও জাতিসঙ্ঘে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে প্রচারণা চালিয়ে থাকে। এসব প্রচারণার মূল উদ্দেশ্য ছিল গত ৫ আগস্ট কাশ্মিরের স্বায়ত্তশাসন রদ করার সিদ্ধান্তের পক্ষে আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলে সমর্থন অর্জন করা। গত ৩০ অক্টোবর কাশ্মির পরিদর্শনকারী ইইউ এমপিদের পরিদর্শনের খবরকে ভিন্ন আঙ্গিকে ফুটিয়ে তুলতে সক্ষম হয়েছে। অনেকে ওই সফরকে ভারত সরকারের সিদ্ধান্তকে বৈধতা দেয়ার শামিল হিসেবে গ্রহণ করেছেন। সূত্র : দ্য হিন্দু ও কোয়ার্টজ ইন্ডিয়া

পিএনএস/আনোয়ার

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech